সন্তান ভেবে এক নারী নিজ দেহে লালন করলেন বিশাল টিউমার!

ওই নারীর পেট কেটে বের করা হয় সাড়ে ২২ কেজির থেকেও বেশি ওজনের একটি টিউমার

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ চিকিৎসকরা বিশাল আকৃতির টিউমারটি দেখে তাজ্জব বনে যান। এতো বিশাল আকৃতির টিউমার একজন মানুষের শরীরে থাকতে পারে! সন্তান ভেবে এক নারী নিজ দেহে লালন করছিলেন ওই বিশাল আকৃতির টিউমার!

ওই নারীর পেট দেখে সবাই ভাবতো, ‘যমজ সন্তান হবে’। যমজ সন্তানের কথা শুনে ওই নারী হাসতে হাসতে উত্তর দিতেন, সন্তানদের নাম রাখবেন ‘টাকো বেল’। তবে অস্বাভাবিক হারে ওজন বাড়তে থাকায় তিনি নিজের খাওয়া কমিয়ে দেন। বেশির ভাগ সময় ওই নারী শাকসবজিই খেতেন। ভাবতেন সন্তান যেহেতু বিশাল জায়গা দখল করেছে, সেহেতু এতো বেশি খাওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই।

অন্ত:সত্ত্বা হওয়ার প্রায় সব রকম লক্ষণই দেখা গিয়েছিলো ৩০ বছর বয়সী কায়লা নামক ওই নারীর। এদিকে শরীর ফুলে যাওয়া, পেটে ব্যথা এবং নি:শ্বাসের কষ্ট- এমন নানা অসুবিধায় ভুগছিলেন ওয়াশিংটনের ওই নারী কায়লা।

অবশেষে চিকিৎসকদের পরীক্ষায় শেষ মুহূর্তে বেরিয়ে আসে এক ভয়ানক রহস্য। পরীক্ষার পর চিকিৎসক জানান যে, কায়লার ডিম্বাশয়ে বাচ্চা নয়, রয়েছে একটি সিস্ট (টিউমার)। এই টিউমারই ওই নারীর অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গের ওপর প্রচণ্ড চাপ সৃষ্টি করছিল। যে কারণে এক সময় বিপজ্জনক হয়ে উঠছিল কায়লার জীবন।

অবশেষে মে মাসের শেষের দিকে করা হয় তার অপারেশন। অপারেশনের পর ওই নারীর পেট কেটে বের করা হয় সাড়ে ২২ কেজির থেকেও বেশি ওজনের একটি টিউমার।

সংবাদমাধ্যেমের খবর অনুযায়ী, কায়লার অপারেশন করা মন্টগোমেরির জ্যাকসন হসপিটালের চিকিৎসক জানান, তার ক্যারিয়ারে এতো বড় আকারের সিস্ট তিনি আগে কখনও দেখেননি।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...