‘ফাইভ সেকেন্ড রুলস’ যা মানলে আপনি পৌঁছে যাবেন সাফল্যের দ্বারপ্রান্তে!

সুযোগ এমন একটি বস্তু যা খুব দ্রুত আমাদের সামনে আসে আবার খুব দ্রুত আমাদের সামনে থেকে প্রস্থান করে।

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ কোন কাজেই আপনি সফলতা অর্জন করতে পারছেন না। তার মূল কারণ হল আপনি সঠিক সময়ে সঠিক কাজটি করতে বা পদক্ষেপ নিতে পারছেন না। আজ আমরা এমন একটি রুলস নিয়ে আলোচনা করবো যা আপনাকে যেকোন কাজে সফলতা অর্জন করতে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখবে।

রুলসটির নাম হচ্ছে ফাইভ সেকেন্ড রুলস। অর্থাৎ কোন পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য মাত্র ৫ সেকেন্ডে আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। সুযোগ এমন একটি বস্তু যা খুব দ্রুত আমাদের সামনে আসে আবার খুব দ্রুত আমাদের সামনে থেকে প্রস্থান করে। যখন কোন সুযোগ আমাদের সামনে চলে আসে, তখন অনেকেই আমরা সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগতে থাকি। আবার অনেক কাজ রয়েছে যা যথা সময়ে না করতে পারলে পরবর্তীতে আর করা যায় না।

ধরুণ আপনি স্বাস্থ ঠিক রাখতে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রতিদিন ভোর ৬ টায় ঘুম থেকে উঠবেন। তারপর শারিরীক ব্যায়াম করতে বাইরে যাবেন। ঘড়িতে অ্যালার্মও দেওয়া আছে কিন্তু যেই ভোর ৬ টায় অ্যালার্ম বেজে উঠলো, তখন আপনি অ্যালার্মটি বন্ধ করে ভাবলেন আর ৫ মিনিট ঘুমায় তারপর উঠবো। তারপর যখন ঘুম ভাঙলো তখন আর ব্যায়াম করা তো দুরের কথা অফিসে যাওয়ার জন্য রেডি হওয়ার মত সময়ও নেই। এভাবে দিনের পর দিন চলে যাচ্ছে কিন্তু আপনি সময় মত ঘুম থেকে উঠতেও পারছেন না আর ব্যায়ামও করতে পারছেন না। ফলে আপনার স্বাস্থ দিন দিন আরো খারাপ হয়ে যাচ্ছে।

একটা কথা মনে রাখবেন আমাদের ব্রেইন হচ্ছে সবসময় রিল্যাক্স করতে পছন্দ করে। তাই ব্রেইন কোন কঠিন বা কোন চাপের কাজ না করতে মনের উপর প্রেসার প্রয়োগ করে। কিন্তু এমনটি ভাববেন না যে ওই কাজটি করার মত সামর্থ আপনার ব্রেইনের নেই। যখনি কোন বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য আপনি একটু বেশি সময় নিবেন তখনি আপনার ব্রেইন সেই কাজটি না করার জন্য আপনাকে নানা ভাবে নিরুৎসাহিত করবে। আপনার সামনে নানা সমস্যা হাজির করবে।

এখন আসি ফাইভ সেকেন্ড রুলসের বিষয়ে। অর্থাৎ মাত্র ৫ সেকেন্ডের মধ্যেই আপনাকে কোন বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কারণ কোন গুরুত্বপূর্ণ কাজের সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য আপনি বেশি সময় পাবেন না। দেরি করলেই আপনার ব্রেইন তার নিরুৎসাহিত করার কাজ শুরু করে দিবে। তাই মাত্র ৫ সেকেন্ডেই সিদ্ধান্ত নিয়ে নিন। ধরুন আপনার অ্যালার্ম বেজে উঠলো তখনি আপনি কাউন্ট শুরু করে দিন। 5, 4, 3, 2, 1 and go. অর্থাৎ 1 বলার সাথে সাথে উঠে পড়ুন। দেখবেন আপনার কাছে আর ৫ মিনিট ঘুমানোর জন্য ব্রেইন সময় চাওয়ার সুযোগ পাবে না। কোন সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় এভাবে ৫ সেকেন্ডে সিদ্ধান্ত নিয়ে নিন। তাহলে আপনার ব্রেইন আপনাকে সেই কাজে নিরুৎসাহিত করার জন্য সুযোগ পাবে না। আর আপনি এই সূত্র নিয়মিত মেনে চলুন ইনশাআল্লাহ আপনি আপনার কাজে সফলতা অর্জন করতে পারবেন।

Advertisements
Loading...