ইন্টারভিউয়ে প্রশ্নের উত্তর দেওয়া ছাড়াও যে ভুলগুলো আপনাকে হতাশ করবে

নিজের মধ্যে এমন একটি ভাব বজায় রাখুন যেন আপনি তাদের থেকে বেশি জানেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ অনেকেই মনে করেন প্রশ্নের উত্তর সঠিকভাবে দিতে পারলেই আপনার চাকরি হয়ে যাবে। এই ধারণা সম্পুর্ণ ভুল। কারণ প্রশ্নের উত্তর দেওয়া ছাড়াও সাক্ষাৎকার গ্রহণকারীরা আপনার যাওয়া-আসা, দাড়ানো, কথা বলার স্টাইল সহ নানা ধরনের আনুসাঙ্গিক বিষয় বিবেচনা করেন। আজ আমরা জানবো ইন্টারভিউয়ে প্রশ্নের উত্তর দেওয়া ছাড়াও যে ভুল গুলো আপনাকে হতাশ করবে।

১। পুশ-পুলঃ

সাধারণত কিছু দরজা একমুখি থাকে। তাই রুমে প্রবেশ করার সময় পুশ বা ধাক্কা দিয়ে প্রবেশ করলে বের হওয়ার সময় পুল বা টান দিয়ে বের হতে হয়। অবশ্য দরজার উপর লেখা থাকা সত্বেও অনেক চাকুরি পার্থী এই ভুলটি করে বসেন। আপনি প্রবেশ করা বা বের হওয়ার সময় এই ভুল করলে সাক্ষাৎকার গ্রহনকারীরা আপনার বেসিক বুদ্ধি কতটা প্রখর তা বুঝতে পারেন। কারণ লেখা থাকা সত্বেও আপনি ভুল করলেন। তাই বুঝতেই পারছেন ব্যাপারটা তাদের কাছে পজিটিভ নাকি নেগেটিভ লাগবে।

২। রুমে প্রবেশের স্টাইলঃ

রুমে প্রবেশের সময় আপনি কিভাবে অনুমতি নিচ্ছেন সেটাও বিবেচনার বিষয়। অনেকে রুমের বাইরে থেকেই প্রবেশের অনুমতি চায় আবার কেউ রুমে প্রবেশ করে অনুমতি চায়। দুটোই ভুল পন্থা। রুমে প্রবেশের সময় অর্ধেক দরজা খুলে শরীরের কিছু অংশ ভিররে ঝুকে দিয়ে অনুমতি চেয়ে নিবেন। তারপর প্রবেশ করবেন।

৩। আগমন এবং প্রস্থানঃ

আপনার আগমন এবং প্রস্থানের মধ্যে কতটা স্মার্ট এবং সক্রিয়তা বজায় রয়েছে তার উপরও আপনার চাকরি অনেকটা নির্ভর করে। অনেকে ইন্টারভিউ দেওয়ার সময় এমন ভাবে রুমে প্রবেশ বা প্রস্থান করেন, দেখে মনে হয় তিনি অনেক দুর্বল বা অলস। তাই রুমে প্রবেশের সময় নিজেকে স্মার্ট এবং সক্রিয় রাখার চেষ্টা করুন। হাঁটার সময় সোজা হয়ে হাঁটার চেষ্টা করুন।

৪। চেহারায় দুর্বলতার ছাপঃ

ইন্টারভিউ নেওয়ার সময় কর্তৃপক্ষ যদি আপনার চেহারায় দুর্বলতার ছাপ দেখতে পায় তাহলে তারা নানা ধরনের উল্টাপাল্টা প্রশ্ন করতে থাকবে। এই দুর্বলতার কারণে অনেক সময় জানা উত্তরও আপনি ভুলে যেতে পারেন। তাই নিজের মধ্যে এমন একটি ভাব বজায় রাখুন যেন আপনি তাদের থেকে বেশি জানেন। তাহলে মনের মধ্যে এই ভয় এবং দুর্বলতা কাজ করবে না। আর আপনার এমন সক্রিয় ভাব বজায় থাকলে তারাও আপনাকে বেশি প্রশ্ন করার সাহস পাবে না।

৫। দাড়ানোর স্টাইলঃ

রুমে প্রবেশের পর আপনি কিভাবে তাদের সামনে দাড়াবেন এটা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। মনে রাখবেন কখনই তাদের সামনে দুই হাত দুই দিকে ছেড়ে দিয়ে দাড়াবেন না। এভাবে দাড়ালে আপনাকে বোকা মনে হবে। দুই হাত দিয়ে ফাইলটা ধরে হাত সামনে রাখার চেষ্টা করবেন। সেই সাথে সোজা হয়ে স্মার্টলি দাড়ানোর চেষ্টা করবেন।

আশা করি এই টিপসগুলো মেনে আপনি আগামী ইন্টারভিউয়ে সফলতা অর্জন করতে পারবেন। এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

Advertisements
Loading...