গাড়ি আটকানোর পর আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অনন্ত জলিল যা বললেন

রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে ট্রাফিক পুলিশের মতোই গাড়ির লাইসেন্স পরীক্ষা করছে শিক্ষার্থী

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের মধ্যে পড়ছেন পুলিশ, মন্ত্রী থেকে শুরু করে তারকারাও। গাড়ি আটকানোর পর আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অনন্ত জলিল অনেক কথায় বললেন। কী বললেন এই জনপ্রিয় তারকা?

গত ৬দিন ধরে নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে ট্রাফিক পুলিশের মতোই গাড়ির লাইসেন্স পরীক্ষা করছে শিক্ষার্থী। এই সময় তারা পুলিশ অফিসার মন্ত্রী থেকে শুরু করে অভিনেতা কাওকেই ছাড় দেননি। চিত্র তারকা শাকিব খানও পড়েছিলেন শিক্ষার্থীদের কবলে। এবার আরেক জনপ্রিয় অভিনেতা অনন্ত জলিল পড়েন শিক্ষার্থীদের সামনে। গতকাল (শনিবার) দুপুরে বনানীতে নায়ক অনন্ত জলিলের গাড়ি আটকায়। এই সময় অনন্ত জলিলের সঙ্গে স্ত্রী বর্ষা এবং ছেলেও ছিলেন ।

শিক্ষার্থীরা অনন্ত জলিলকে ৫ মিনিটের জন্য গাড়ি থেকে নেমে আন্দোলনে শরিক হবার জন্য আহ্বান জানান। অনন্ত জলিল জানান, তার ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও নামতে পারছেন না, কারণ হিসেবে তিনি জানা, এতে করে বাড়তি ভিড় হবে।

এই সময় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে অনন্ত জলিল বলেন, আমি আজকেই ফেসবুকে আন্দোলনটি নিয়ে পোস্ট দিতাম। পৃথিবীর সব ভালো কিছুই ছাত্র আন্দোলনের মাধ্যমেই আসে। কারণ হলো ছাত্ররাই নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে। তাদের উদ্যোগী হবার ফলে আইডিয়ার পরিবর্তন হয়। ছাত্রদের সব আন্দোলনই ভালো কিছু বয়ে নিয়ে আনে। আমি তোমাদের এই দাবিকে সমর্থন করছি।

উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই দুপুরে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের অদূরে বিমানবন্দর সড়কে (র‍্যাডিসন হোটেলের সামনে) বাসচাপায় রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী দিয়া খানম মিম ও আবদুল করিম রাজিব নিহত হয়। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট চালকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতকরণের জন্য ৯ দফা দাবি জানায় শিক্ষার্থীরা। একই দাবিতে গত সাত দিন ধরে শিক্ষার্থীরা রাজধানীর সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ করে চলেছে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...