মেয়ের সিভিতে এক বাবা লিখেছেন ‘অলস, ব্যর্থ, অবাধ্য’!

সেই সিভিটি ট্যুইটারে নিমেষে ছড়িয়ে পড়ে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সত্য কথা বলার রীতি বর্তমান সময় প্রায় উঠেই গেছে। তারপরও মাঝে-মধ্যে দেখা যায় এমন কিছু ব্যক্তিকে যারা সত্য বলতে দ্বিধা বোধ করেন না। তাতে তার ক্ষতি হলে হোক! এমনই এক বাবার খোঁজ পাওয় গেছে যিনি মেয়ের সিভিতে লিখেছেন ‘অলস, ব্যর্থ, অবাধ্য’!

আমরা সাধারণভাবে দেখে থাকি কোনো বাবা যখন তার মেয়ের চাকরির জন্য বা অন্য কোনো প্রয়োজনে সিভি বা বায়োডাটা দেন সেখানে সবকিছুই পজিটিভলিই লেখেন। কোনো খারাপ দিক থাকলেও সেগুলো কখনও কেও সামনে আনেন না। তবে এবার এক ব্যতিক্রমি বাবার খোঁজ পাওয়া গেছে। যিনি মেয়ের সিভিতে লিখেছেন ‘অলস, ব্যর্থ, অবাধ্য’! তিনি সত্য কথাটি অপকটে স্বীকার করেছেন।

মেয়ের প্রথম সিভি লিখতে গিয়ে এক ব্রিটিশ বাবা এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন। ব্রিটিশ তরুণী লরেন তার বাবাকে সিভি লিখে দিতে বলেন, তিনি তা যথেষ্ট আগ্রহ নিয়েই করতেও বসেন। যেভাবে সিভি লিখতে হয় ঠিক সেইভাবেই শুরুটা করেন তিনি, তবে ভিতরে মেয়ের গুণাগুন লিখতে গিয়ে এতোটাই সততা তিনি দেখালেন যে, তা সোশ্যাল মিডিয়ায় লরেন শেয়ার করার পর চাকরি না হোক ভিউয়ার্স বাড়াতে এবং ভাইরাল হতে যে সময় নেয়নি তা চোখ বুজে বলা যায়।

সেই সিভিটি ট্যুইটারে নিমেষে ছড়িয়ে পড়ে। লরেনের বাবা লেখেন যে, তার মেয়ে ২ বিষয়ে ফেল করেছে। আরও তিনি লিখেন যে, তার মেয়ে শুধু ফেসবুক ব্যবহার করে, কারও কথা শোনে না, অলস, বদমেজাজি ইত্যাদি। লোরেন অবশ্য তার এই সিভি ট্যুইটারে শেয়ারও করেন। এই সিভিটি দেখে অনেকেই মন্তব্য করেন, লোরেন’র বাবা ‘ফাদার অব দ্য ইয়ার’! কারণ সত্য কথা অপকটে স্বীকার করার মন মানষিকতা সবার থাকে না।

Advertisements
Loading...