রোহিঙ্গা গণহত্যা মিয়ানমারের সেনাদের পূর্ব পরিকল্পিত: যুক্তরাষ্ট্র

২০ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞাসহ অন্যান্য শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানিয়েছেন মার্কিন কর্মকর্তারা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পূর্ব পরিকল্পনা বা নিলনক্সা অনুযায়ী মিয়ানমারের সেনারা রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যাসহ অত্যাচার-নির্যাতন চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক তদন্ত প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই তথ্য দিয়েছে। বাংলাদেশে অবস্থিত রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পের প্রায় এক হাজারেরও বেশি নারী ও পুরুষের সঙ্গে কথা বলার পর এই প্রতিবেদনটি করা হয়েছে।

২০ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনটিতে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞাসহ অন্যান্য শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানিয়েছেন মার্কিন কর্মকর্তারা।

২০১৭ সালের ২৪ আগস্ট কয়েকটি পুলিশ চেকপোস্টে কথিত রোহিঙ্গা বিদ্রোহীরা হামলা চালায়। এর পরের দিন ২৫ আগস্ট রাখাইনে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মিয়ানমার সেনাবাহিনী অভিযান শুরু করে।

নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে এবং সেনাদের নিপীড়ন হতে প্রাণে বাঁচতে ৭ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা পালিয়ে নাফ নদী পেরিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণ করে। বিভিন্ন সময় সহিংসতার শিকার আরও ৪ লাখ রোহিঙ্গা আগে থেকেই বাংলাদেশের কক্সবাজারে অবস্থান করে আসছে।

পৃথিবীর অন্যান্য দেশ যেখানে উদ্বাস্তু-শরনার্থদের দরজা বন্ধ করে দিয়েছে, সেখানে বাংলাদেশ নিপীড়ন রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে মানবতার এক অনন্য নজির স্থাপন করেছে।

উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে এক প্রতিবেদনে রোহিঙ্গা নিধনযজ্ঞকে জাতিগত নির্মূল অভিযান হিসেবে আখ্যায়িত করে জাতিসংঘ।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...