The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

শুটিং এ দুর্ঘটনা: বিছানা থেকে উঠতে পারছেন না পুর্ণিমা-ফেরদৌস

নির্মাণাধীন ‘গাঙচিল’-এর সেটে শুটিং এর সময় তারা মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মারাত্মক আঘাত পেয়েছেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা ফেরদৌস ও অভিনেত্রী পূর্ণিমা শুটিং সেটে গুরুতর আহত হয়েছেন বেশ কয়েক দিন আগে। কিন্তু এখনও বিছানা থেকে উঠতে পারছেন না পুর্ণিমা-ফেরদৌস।

শুটিং এ দুর্ঘটনা: বিছানা থেকে উঠতে পারছেন না পুর্ণিমা-ফেরদৌস 1

ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা ফেরদৌস ও অভিনেত্রী পূর্ণিমা শুটিং সেটে গুরুতর আহত হয়েছেন বেশ কয়েক দিন আগে। কিন্তু এখনও বিছানা থেকে উঠতে পারছেন না পুর্ণিমা-ফেরদৌস।

নোয়াখালীর কোম্পানিগঞ্জে নির্মাণাধীন ‘গাঙচিল’-এর সেটে শুটিং এর সময় তারা মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মারাত্মক আঘাত পেয়েছেন। থেঁতলে গেছে তাদের শরীরের বিভিন্ন জয়াগা।

দুর্ঘটনার দিন রবিবার সকালে মোটরসাইকেলের একটি দৃশ্যের শুটিং হচ্ছিল। শনিবারও এই দৃশ্যের শুটিং হয়। মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন পূর্ণিমা এবং তার পেছনে বসেছিলেন ফেরদৌস। হঠাৎ রাস্তায় স্লিপ কেটে তাদের মোটরসাইকেলটি উল্টে গেলে ফেরদৌস ও পূর্ণিমা ছিটকে রাস্তার পাশে পড়ে গিয়েছিলেন। এতে দুজনই ব্যথা পান। দুজনের শরীরের কিছু স্থানে কেটে গেছে।

ওই দুর্ঘটনায় পূর্ণিমার কাঁধে প্রচণ্ড ব্যথা পেয়েছেন। নায়ক ফেরদৌস বাঁ পায়ের হাঁটুতে চোট পেয়েছে। থেঁতলে গেছে তাদের শরীরের বিভিন্ন জায়গা। তাঁরা সুস্থ হলে শুটিংয়ের পরবর্তী তারিখ নির্ভর করবে।

গত রবিবার সকালে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরমণ্ডলে শুটিংস্থলে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনার শিকার হন নায়িকা পূর্ণিমা ও নায়ক ফেরদৌস। সেখানে ওবায়দুল কাদেরের লেখা উপন্যাস অবলম্বনে ‘গাঙচিল’ সিনেমার শুটিং করছিলেন এই নায়ক-নায়িকা। পরে দুপুরে ফেরদৌস ও পূর্ণিমাকে সেখানকার বসুরহাট সেন্ট্রাল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।

বসুরহাট সেন্ট্রাল হাসপাতালে চিকিৎসক ডা. আ ক ম আব্দুল হক জানিয়েছেন, ফেরদৌস ও পূর্ণিমা এখানে এসেছিলেন। তারা দু’জনই ব্যথা পেয়েছেন। কিছু জায়গায় কেটেও গেছে। তবে তাদের শরীরের কোনো জায়গায় ফ্রেকচার হয়নি। তবুও এক্স-রে করানো হয়। এক্সরে করানোর পর দেখা গেছে যে, তাদের কোনো মারাত্মক ফ্রেকচার হয়নি। তবে দুজনের চামড়া থেঁতলে গেছে। ওখান থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হোটেলে নিয়ে যাওয়া হয়।

শুটিং এ দুর্ঘটনা: বিছানা থেকে উঠতে পারছেন না পুর্ণিমা-ফেরদৌস 2

পরিচালক নঈম সাংবাদিকদের আগেই বলেছিলেন, আগামী মার্চের শেষ দিকে সিনেমাটির শুটিংয়ের কাজ শেষ করা হবে। চলতি বছরের মাঝামাঝির দিকে সিনেমাটি দর্শক দেখতে পাবেন বলেও তিনি আশা করেছিলেন। তবে ছবিটির নায়ক-নায়িকার এই দুর্ঘটনার কারণে শুটিং এ বিলম্ব হওয়ায় মুক্তির দিনও পিছিয়ে যেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল পরিচালিত এই সিনেমায় নায়ক ফেরদৌস সাংবাদিক চরিত্রে এবং নায়িকা পূর্ণিমা একজন এনজিও কর্মীর চরিত্রে অভিনয় করছেন। অতিথি শিল্পি হিসেবে থাকছেন কোলকাতার অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। ছবিটির চিত্রনাট্য লিখেছেন, মারুফ রেহমান এবং প্রিয় চট্টোপাধ্যায়।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...