ছিটমহলবাসীদের গণঅনশন ॥ পরবাসী জীবন আর কতদিন ?

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ছিটমহলবাসীদের দাবি দীর্ঘদিনের। তারা নিজ দেশেই পরবাসী জীবন যাপন করছেন দীর্ঘদিন ধরে। বার বার সরকার পরিবর্তন ঘটছে, কিন্তু ছিটমহলবাসীদের দাবি উপেক্ষা হয়ে আসছে। নাগরিকত্বের দাবিতে পঞ্চগড়ের পুটিমারী ছিটমহলে ১১১টি ছিটমহলের অধিবাসীদের গণঅনশন কর্মসূচির গত ১৮ মার্চ থেকে শুরু হয়েছে। এদিকে পঞ্চগড়সহ বিভিন্ন ছিটমহলের মসজিদ ও মন্দিরে ছিটমহলবাসীদের মঙ্গল কামনা করে দোয়া ও পূজা-অর্চণার আয়োজন করা হয়।

স্থানীয় সাংবাদিকরা জানিয়েছেন, গণঅনশন কর্মসূচির ষষ্ঠ দিনে (২৩ মার্চ) আরও ৩ জনের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটেছে। এ নিয়ে ছিটমহলের মোট ১৬ জন বাসিন্দা গুরুতর অসুস্থ হয়ে বোদা ও পঞ্চগড় হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। অপরদিকে দীর্ঘ ৬ দিন অতিবাহিত হওয়া সত্ত্বেও প্রশাসন বা ভারতীয় কোন তরফ থেকেই ছিটমহলবাসীদের কর্মসূচির প্রতি ন্যূনতম কোন সহানুভূতি না দেখানোয় সর্বস্তরের রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ এলাকাবাসীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

পঞ্চগড় পৌর মেয়র মোঃ তৌহিদুল ইসলাম যত দ্রুত সম্ভব প্রটোকল চুক্তি কার্যকরসহ ছিটমহল অধিবাসীদের দাবিগুলো মেনে নিতে বাংলাদেশ সরকার ও ভারতীয় কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। দুদেশের প্রচেষ্টায় দীর্ঘদিনের এই সমস্যার সমাধান হবে বলে অভিজ্ঞ মহল আশা প্রকাশ করেছেন।

উল্লেখ্য, ১৯৭৪ সালের ইন্দিরা-মুজিব চুক্তির আলোকে অবিলম্বে ছিটমহল বিনিময়, ছিটমহলের জনগণের খাদ্য, বস্ত্র, আবাসন, স্বাস্থ্য, শিক্ষা নিশ্চিত করাসহ বিভিন্ন দাবিতে “হয় নাগরিত্ব, নয় মৃত্যু” স্লোগানে এই অনশন কর্মসূচি শুরু করা হয়েছে।

Advertisements
Loading...