The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এক ‘রাজকুমারী’র বিয়ে হলো কংক্রিটের সেতুর সঙ্গে!

আঙুলে আংটি, গায়ে লম্বা বিয়ের সাদা গাউন, হাতে ফুল। দিব্যি বিয়ের পোশাকে কনে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সত্যিই এই দুনিয়ায় যে আর কতো কিছু হবে এবং আমাদের আরও কতো কিছুই না দেখতে হবে। এবার এক ‘রাজকুমারী’র বিয়ে হলো কংক্রিটের সেতুর সঙ্গে!

এক 'রাজকুমারী'র বিয়ে হলো কংক্রিটের সেতুর সঙ্গে! 1

ডেইলি মেইল-এর এমন একটি খবর সকলকে অবাক করেছে। এও কী সম্ভব? মানুষের সঙ্গে কী কখনও কংক্রিটের সেতুর বিয়ে হতে পারে? তবে সত্যিই তাই ঘটেছে।

আঙুলে আংটি, গায়ে লম্বা বিয়ের সাদা গাউন, হাতে ফুল। দিব্যি বিয়ের পোশাকে কনে। তবে জানেন এটি কেনো? বিয়ের জন্যই তবে জোডি রোজ নামের এই অস্ট্রেলীয় নারীর স্বামী কে জানেন? একটি কংক্রিটের সেতু! হ্যাঁ, ফ্রান্সের একটি বহু প্রাচীন সেতুকে বিয়ে করেছেন এই নারী। দেশটির প্রশাসনিক বিভাগ কেরেটে টেক রিভারের ওপর অবস্থিত ‘লা পোন্ত দো দিয়াবল’ নামের ব্রিজ তারই স্বামী। ব্রিজটির নামের ইংরেজি অর্থ হলো দ্য ডেভিল’স ব্রিজ। ২০১৩ সালে রোজ বিয়ে করেছিলেন ব্রিজটিকে।

দেখতে দেখতে ৬ বছর কেটে গেছে তার। প্রত্যেক নারীর মতো আজও সবচেয়ে আনন্দঘন ঘটনা হিসেবে রোজ স্মরণ করেন বিয়ের সেইসব মুহূর্তগুলোর কথা। নানা পরিক্রমায় বার বার ফিরে যান সেখানেই। স্বামীকে বর্ণনা করেন হ্যান্ডসাম, শক্তিমান ও বলিষ্ঠ স্বামী হিসেবে।

সম্প্রতি এই নারী সংবাদ মাধ্যমের কাছে তুলে ধরেন তাঁর বিয়ের এই গল্প। রোজ জোডির ভাষায়, ‘এক পরী ও তার হ্যান্ডসাম, শক্তিমান এবং বলিষ্ঠ স্বামীর গল্প এটি’!

বিয়ের পূর্বে ফ্রান্স ভ্রমণকালে রোজ দেখা পান ১৪ শতকে নির্মিত পাথরের এই স্থাপনাটির। তারপরই সিদ্ধান্ত নেন প্রাচীন এই ব্রিজটিকেই তিনি বিয়ে করবেন। তারপর যা কথা তাই কাজ, আয়োজন করা হয় বিয়ের। ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেন ১৪ জন অতিথি। স্বামী-স্ত্রীকে আশির্বাদ করেন প্রতিবেশী শহরের মেয়র সেন্ট জিন দো ফস। রোজ তার অনুভূতির কথা ব্যক্ত করে বলেন, ব্রিজটিকে বিয়ে করা সে যেনো এক ‘সুন্দর অনুভূতি’।

অস্ট্রেলীয় সংবাদ মাধ্যম ‘সানডে নাইট’-কে’ রোজ বলেছেন, আমি সত্যিই খুব নার্ভাস ছিলাম- যেনো নিজেই একটি সুন্দরী ব্রিজ। অবশেষে আসলো রাজকুমারীর বিয়ের দিন। রোজ এখনও গর্বের সঙ্গে পরেন বিয়ের সেই আংটি। বিয়ের পোশাকে অপলক দাঁড়িয়ে থাকেন ব্রিজটির পাশে।

বিড়বিড় করে রোজ আরও বলেন, ‘দেখো, আমি আংটি পরেছি বেবি।’ প্রতিবেদককে উদ্দেশ্য করে রোজ বলেন, ‘সে অনেক হ্যান্ডসাম, শক্তিমান ও বলিষ্ঠ। আমি মনে করি সে-ই আমার আকাঙ্খিত যাকে আমি স্বামী হিসেবে পেতে চেয়েছিলাম। সে-ই আমাকে ভরসা দিতে পারে যার অস্তিত্ব আমি সব সময় অনুভব করি।

রোজ আরও বলেন, ‘সে আমাকে নিরাপদ আশ্রয় দেয়, আমাকে তার কাছে আবার ফিরিয়ে আনে। একজন স্বামীর কাছে আমি যা কিছু প্রত্যাশা করি, দ্য ডেভিল’স ব্রিজ তার সবকিছুই দেয় আমাকে।

আবেগঘন বিষয়ের অবতারণা করে রোজ আরও বলেন, ‘যদি আমি অন্য কোনও ব্রিজ বা পুরুষকে ভালোবাসি, তবে সে (দ্য ডেভিল’স ব্রিজ) তাও বুঝতে পারে! আমাদের মধ্যে এমন ভালোবাসা বিদ্যমান যা আমরা প্রতিমুহূর্তে বোধ করি পরস্পরকে আলিঙ্গন করার মাধ্যমে!

উল্লেখ্য, রোজ যতো কথা বলুক না কেনো ফ্রান্সে এই ধরনের বিয়ের কোনো স্বীকৃতি নেই। রোজ’র দাবি হলো, তাদের সত্যিই বিয়ে হয়েছে। তাদের মাঝে বিয়ের সেই সম্পর্কও অটুট!

Loading...