The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ব্রেকিং নিউজ: শেখ হাসিনার ট্রেনবহরে হামলার রায়ে ৯ জনের ফাঁসি ও ২৬ জনের যাবজ্জীবন

বিএনপির ৩০ নেতা-কর্মীর উপস্থিতিতে উভয়পক্ষের আইনজীবীরা তাদের নিজ নিজ যুক্তি তুলে ধরেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পাবনার ঈশ্বরদীতে শেখ হাসিনার ট্রেনবহরে গুলিবর্ষণ এবং হামলা মামলার ঘটনায় ৯ জনের ফাঁসি, ২৬ জনের যাবজ্জীবন এবং ১২ জনের ১০ বছরের কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত।

ব্রেকিং নিউজ: শেখ হাসিনার ট্রেনবহরে হামলার রায়ে ৯ জনের ফাঁসি ও ২৬ জনের যাবজ্জীবন 1

আজ (৩ জুলাই) পাবনার অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ আদালত এ রায় দিয়েছেন। মামলার যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে গত ১ জুলাই আদালত রায় ঘোষণার জন্য আজ বুধবারের (৩ জুলাই) দিন ধার্য করেছিলেন।

বিএনপির ৩০ নেতা-কর্মীর উপস্থিতিতে উভয়পক্ষের আইনজীবীরা তাদের নিজ নিজ যুক্তি তুলে ধরেন। উভয়পক্ষের বক্তব্য শুনে বিচারক রুস্তম আলী রায় ঘোষণার দিন নির্ধারণ করেন।

এই মামলার প্রধান আসামি ঈশ্বরদী পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া পিন্টু এবং অন্যতম আসামি পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি ও ঈশ্বরদী পৌরসভার সাবেক মেয়র মকলেছুর রহমান বাবলু আজ আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বিএনপি নেতা হুমায়ুন কবীর দুলাল আদালতে হাজির না থাকায় তার বিরদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৪ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগ সভানেত্রী সাংগঠনিক সফরে খুলনা হতে রাজশাহী অভিমুখে বের হয়ে বিভিন্ন স্থানে পথসভা করেন। ঈশ্বরদী রেল স্টেশনে তার নির্ধারিত পথসভা ছিল। তাকে বহনকারী ট্রেন পাকশী স্টেশনে পৌঁছার পরপরই ওই ট্রেনে গুলিবর্ষণ এবং বোমা হামলা চালানো হয়।

এই ঘটনায় ঈশ্বরদী জিআরপি থানার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে ঘটনার দিনই একটি মামলা দায়ের করেন। এর ঠিক ৩ বছর পর ১৯৯৭ সালের ৩ এপ্রিল পুলিশ ৫২ জনের নামে এই মামলার চার্জশিট দাখিল করেন।

তারমধ্যে গত রবিবার ৩০ জন আসামি আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে আদালত নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। মামলার ৬ আসামি ইতিমধ্যেই মারা গেছেন। বাকিদের বিরুদ্ধে আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...