The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এক‍‍ পাগলের প্রলাপ: `মশাদের মারবেন না, ওদের রক্ত খেতে দিন‍‍`!

ফরাসি পশুপ্রেমী এক সংগঠন বলছে যে, মশা মারবেন না। এমনকি মশাদের কামড়াতে দেওয়ারও অনুরোধ করা হয়েছে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মশা মারতে কামান দাগার মতো অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। সারা দেশজুড়ে এডিশ মশার কারণে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হাজার হাজার মানুষ। ইতিমধ্যেই প্রায় অর্ধ শতাধিক মানুষের জীবন গেছে। অথচ এক ব্যক্তি পাগলের প্রলাপ বকছেন বলছেন- `মশাদের মারবেন না, ওদের রক্ত খেতে দিন‍‍`!

এক‍‍ পাগলের প্রলাপ: `মশাদের মারবেন না, ওদের রক্ত খেতে দিন‍‍`! 1

ডেঙ্গুতে আতংকিত হয়েছে পড়েছেন পুরো দেশ, বিপর্যস্ত বাংলাদেশের প্রায় সকল মানুষ। মশা মারতে সরকার হতে শুরু করে বিশেষজ্ঞসহ নানা মহলে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা এখন চরমে। কীভাবে মশা মারা যায় তা নিয়ে নানা রকম পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। বলতে গেলে মশা-মানুষে টানাটনি পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। রাজধানীতে শুরু হলেও এখন দেশের বিভিন্ন জেলা শহরে ছড়িয়ে পড়েছে ডেঙ্গু রোগ।

তবে আমাদের দেশের এমন কাণ্ডের মধ্যেই ফরাসি পশুপ্রেমী এক সংগঠন বলছে যে, মশা মারবেন না। এমনকি মশাদের কামড়াতে দেওয়ারও অনুরোধ করা হয়েছে!

ফ্রান্সের একটি টিভি চ্যানেলের সঞ্চালক আইমেরিক ক্যারন বলেছেন, মশাগুলো তাদের সন্তান জন্ম দেওয়ার জন্য মানুষের রক্ত পান করে থাকে। সন্তান জন্ম দানে তাদের বাধা দেওয়া মোটেও ঠিক নয়!

তিনি আরও বলেন যে, মূলত সন্তানদের বাঁচাতে মা মশা মানুষের রক্ত পান করে। আর তাই প্রাণীকূলের সবার সঙ্গেই সমান আচরণ করা উচিত। তাদেরও তো জীবন রয়েছে! তাদেরও বেঁচে থাকার এবং বংশবৃদ্ধির অধিকার থাকা উচিত।

নিজেকে তিনি মশাপ্রেমী উল্লেখ করে আরও বলেন যে, যেখানে ডেঙ্গু হওয়ার শঙ্কা রয়েছে, কেবল সেখানে বাদে অন্য সবখানেই মশাদের রক্ত পানে বাধা দেওয়া মোটেও উচিত নয়। আমি নিজেও মশাদের কখনই রক্ত পানে বাধা প্রদান করি না।

ওই ব্যক্তি আরও বলেন, এটা মনে করতে হবে, একটা প্রাণীর বাচ্চা লালন-পালনের জন্য কিছু সময় পরপর তাদের রক্ত দেওয়া হচ্ছে। এটাকে হাস্যকর বা নাটক মনে করার কিছুই নেই বলেও তিনি উল্লেখ করেছেন!

Loading...