The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ফিলিপাইন সরকার ডেঙ্গুকে ‘জাতীয় মহামারি’ ঘোষণা করলো

ডেঙ্গুতে এই বছর দেশটিতে এ পর্যন্ত অন্তত ৬২২ জন প্রাণ হারিয়েছেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ফিলিপাইনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ডেঙ্গুতে এই বছর দেশটিতে এ পর্যন্ত অন্তত ৬২২ জন প্রাণ হারিয়েছেন। যে কারণে ফিলিপাইন সরকার ডেঙ্গুকে ‘জাতীয় মহামারি’ ঘোষণা করলো।

ফিলিপাইন সরকার ডেঙ্গুকে ‘জাতীয় মহামারি’ ঘোষণা করলো 1

ফিলিপাইনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ডেঙ্গুতে এই বছর দেশটিতে এ পর্যন্ত অন্তত ৬২২ জন প্রাণ হারিয়েছেন। যে কারণে ফিলিপাইন সরকার ডেঙ্গুকে ‘জাতীয় মহামারি’ ঘোষণা করলো।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়, ২০১৯ সালের ০১ জানুয়ারি হতে ২০ জুলাই পর্যন্ত দেশটির অন্তত ১ লাখ ৪৬ হাজার মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে ডেঙ্গুকে ‘জাতীয় মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে ফিলিপাইন সরকার।

ইতিপূর্বে চলতি বছরের জুলাই মাসে ডেঙ্গুর প্রকোপের কারণে ‘জাতীয় ডেঙ্গু সতর্কতা’ জারি করে তারা। এবার পরিস্থিতির ভয়াবহতা বোঝানোর জন্র ডেঙ্গুকে ‘জাতীয় মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করলো দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দেশ ফিলিপাইন।

ফিলিপাইনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলেছে , ২০১৮ সালেও ডেঙ্গুর প্রকোপ দেখা দিয়েছিল দেশটিতে। তবে সে তুলনায় এই বছরে আক্রান্তের হার শতকরা ৯৮ ভাগ বেশি। এই সময়ের মধ্যে ডেঙ্গুতে মারা গেছেন অন্তত ৬২২ জন।

ফিলিপাইনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফ্রান্সিসকো দুকে এই বিষয়ে এক বিবৃতিতে বলেছেন যে, ‘ কর্মকর্তারা যেনো জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা নিতে পারেন, সে কারণেই ডেঙ্গুকে জাতীয় মহামারি হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। কোথায় কোন ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন সেটি শনাক্ত করতে এবং ডেঙ্গু মোকাবিলায় স্থানীয় প্রশাসন যেনো দ্রুত রেসপন্স ফান্ড ব্যবহার করতে পারেন, সে কারণেই এই ঘোষণা এসেছে সরকারের পক্ষ থেকে। ’

আর্ন্তজাতিক গণমাধ্যমগুলোর খবরে জানা যায়, এ বছর দেশটির ওয়েস্টার্ন বিসায়াস অঞ্চলে সর্বোচ্চ ২৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত করা হয়েছেন। তাছাড়া শত শত মানুষ ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন কালাবারজন, জামবোয়াঙ্গা পেনিনসুলা এবং নর্দান মিন্দানাও অঞ্চলে।

জাতিসংঘ নিয়ন্ত্রিত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) পরিসংখ্যান অনুযায়ী, প্রতিবছরই প্রায় ৪০ কোটি মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হচ্ছেন।

উল্লেখ্য, ১৯৭০ সালের পূর্বে বিশ্বের মাত্র ৯টি দেশে ডেঙ্গুর অস্তিত্ব পাওয়া যায়। অথচ বাংলাদেশেসহ ১০০টিরও বেশি দেশে বর্তমানে ডেঙ্গুর প্রকোপ দেখা যাচ্ছে। বাংলাদেশেও ডেঙ্গু রোগের ব্যাপক প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। প্রথম পর্যায়ে শুধু রাজধানী ঢাকাতে এর প্রকোপ দেখা গেলেও পরবর্তীতে দেশের অন্যান্য জেলাতেও ছড়িয়ে পড়ছে ডেঙ্গুর প্রকোপ।

Loading...