The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

পাক-অধিকৃত-কাশ্মীরের অধিকার ছেড়ে দিতে পাকিস্তান প্রতি আহ্বান ব্রিটেনের

পাকিস্তান ও ভারত দুই দেশকে নিয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশ সমঝোতার চেষ্টা করে আসছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সাম্প্রতিক সময় কাশ্মীর নিয়ে পুরো বিশ্বই যেনো এক মহা সংকটের মধ্যে রয়েছে। পাকিস্তান ও ভারত দুই দেশকে নিয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশ সমঝোতার চেষ্টা করে আসছে। এবার পাক-অধিকৃত-কাশ্মীরের অধিকার ছেড়ে দিতে পাকিস্তান আহ্বান জানালো ব্রিটেন।

পাক-অধিকৃত-কাশ্মীরের অধিকার ছেড়ে দিতে পাকিস্তান প্রতি আহ্বান ব্রিটেনের 1

সাম্প্রতিক সময় কাশ্মীর নিয়ে পুরো বিশ্বই যেনো এক মহা সংকটের মধ্যে রয়েছে। পাকিস্তান ও ভারত দুই দেশকে নিয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশ সমঝোতার চেষ্টা করে আসছে। এবার পাক-অধিকৃত-কাশ্মীরের অধিকার ছেড়ে দিতে পাকিস্তান আহ্বান জানালো ব্রিটেন।

পাকিস্তানের সময়টা যে ভালো নয় তা বারবারই বুঝিয়ে দিচ্ছে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন মহল। কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপ ও স্পেশাল স্ট্যাটাস মুছে ফেলাকে কেন্দ্র করে ভারতের বিরোধিতা করা তেমন একটা লাভজনক হয়নি। বিশ্বের শক্তিশালী দেশগুলি হতে রাষ্ট্রসংঘ সবজায়গা হতেই উপদেশ আসছে সংযত হওয়ার। সে কারণে এবার পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে (PoK) চোখ পড়েছে পাকিস্তান এবং ভারতের। তাই PoK নিয়ে নতুন করে হাওয়া লেগেছে কাশ্মীর দরজায়। সে কারণে এই ইস্যুকে আবারও রাষ্ট্রসংঘে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তে পাকিস্তানকে কার্যত কটাক্ষ করেছে ব্রিটিশ সাংসদ বব ব্ল্যাকম্যান।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, গতকাল (রবিবার) এই ব্রিটিশ সাংসদ স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন যে, জম্মু ও কাশ্মীর ভারতেরই অংশ। তাই পাকিস্তানের উচিত প্রথমেই পাক-অধিকৃত কাশ্মীর খালি করে দেওয়া। তার এই বক্তব্য, “সমগ্র জম্মু ও কাশ্মীর ভারতের অংশ। যারা এই বিষয়ে রাষ্ট্রসংঘের উপদেশ কার্যকর করতে চাইছেন তাদের এখনই পাক মিলিটারি বাহিনীকে কাশ্মীর হতে বের করে দেওয়া উচিত। যাতে এই রাজ্যকে এক করা সম্ভব হয়।”

পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মহম্মদ কুরেশি কিছুদিন আগে জানিয়েছিছেন যে, ইসলামাবাদ কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে আবারও আন্তর্জাতিক আদালতের দ্বারস্থ হবে এবং নরেন্দ্র মোদী সরকারের কাশ্মীর হতে ৩৭০ ধারা মুছে ফেলার সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জও করা হবে। ঠিক এই মন্তব্যের পরই ব্রিটিশ সাংসদ বব ব্ল্যাকম্যান এমন বক্তব্য করেছেন। এই খবরটি দিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম কলকাতা২৪।

গত শুক্রবার ইমরান খান পাক অধিকৃত কাশ্মীরের রাজধানী মুজাফরাবাদে কাশ্মীর ইস্যুতে একটি শোক মিছিলে অংশগ্রহণ করেন। সেখানে তিনি বলেন যে, আগামী সপ্তাহে রাষ্ট্রসংঘের জেনারেল অ্যাসেম্বলীতে তিনি বক্তব্য রাখবেন। কারণ তিনি কোনোভাবেই কাশ্মীরি মানুষদের এতোটুকুও হতাশ করতে চান না।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...