The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

মা-বাবার হাতাহাতি: এক শিশুর করুণ মৃত্যু

মা-বাবার ঝগড়ার কারণে অনেক সময় অনেক বড় বিপর্যয় নেমে আসতে পারে

দি ঢাকা টাইমস ডেস্ক ॥ মা-বাবার ঝগড়ার কারণে অনেক সময় অনেক বড় বিপর্যয় নেমে আসতে পারে। যেমন ঘটেছে ভারতে। সেখানে এক মা-বাবার হাতাহাতির কারণে প্রাণ দিতে হয়েছে এক অবোধ শিশুকে! এমন ঘটনা ইতিপূর্বে কখনও দেখা যায়নি। তবে ঝগড়া বা বিবাদ মানুষের জন্য কোনো কল্যাণ বয়ে আনে না তার প্রমাণ হলো এই ঘটনার মাধ্যমে।

মা-বাবার হাতাহাতি: এক শিশুর করুণ মৃত্যু 1

মা-বাবার ঝগড়ার কারণে অনেক সময় অনেক বড় বিপর্যয় নেমে আসতে পারে। যেমন ঘটেছে ভারতে। সেখানে এক মা-বাবার হাতাহাতির কারণে প্রাণ দিতে হয়েছে এক অবোধ শিশুকে! এমন ঘটনা ইতিপূর্বে কখনও দেখা যায়নি। তবে ঝগড়া বা বিবাদ মানুষের জন্য কোনো কল্যাণ বয়ে আনে না তার প্রমাণ হলো এই ঘটনার মাধ্যমে।

সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত এক খবরে জানা যায়, ঝগড়া হতে শুরু হলো মা-বাবা দু’জনের হাতাহাতি। মা-বাবার এমন ঝগড়ার জেরে বেঘোরে প্রাণ দিতে হলো ৫ মাস বয়সী শিশুর। ওই দম্পতির বিরুদ্ধে অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা দায়ের করেছে স্থানীয় পুলিশ। তবে শিশুটির বাবা গা ঢাকা দিয়েছে বলে জানা গেছে।

কোলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকার এক খবরে জানা যায়, গত রবিবার রাতে পূর্ব দিল্লির কোন্দলি এলাকায় এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে।

স্থানীয় পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে, ২৯ বছর বয়সী দীপ্তি ও তার স্বামী ৩২ বছরের সত্যজিতের মধ্যে ঝগড়া বাধে। এই ঝগড়া এক সময় ক্রমশ হাতাহাতিতে পরিণত হয়। দীপ্তিকে লাঠি দিয়ে মারতে শুরু করে দেয় সত্যজিৎ। ওই লাঠিতেই একটি পেরেক আঁটা ছিল বলে জানা যায়, যা এক সময় হাত ফস্কে শিশুটির মাথায় গিয়ে লাগে।

শুরুতে বাড়িতেই শিশুটির প্রাথমিক চিকিৎসা করেন দীপ্তি ও সত্যজিৎ। পরে অবস্থার অবনতি ঘটলে স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রেও নিয়ে যায় তারা। তবে মঙ্গলবার সকাল থেকে আচমকা পরিস্থিতির অবনতি হতে শুরু করে। লাগাতার বমি করতে শুরু করে দেয় শিশুটি। তড়িঘড়ি দিল্লির ম্যাক্স হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

সজোরে আঘাতের কারণে মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধেই শিশুটির মৃত্যু ঘটেছে বলে ময়নাতদন্তের রিপোর্টে উঠে এসেছে। ওই দম্পতির বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় ৩০৪ ধারায় (অনিচ্ছাকৃত খুন) মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে শিশুটির বাবা ইতিমধ্যেই গা ঢাকা দিয়েছে। তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে স্থানীয় পুলিশ।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...