The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

দিল্লিতে হামলার আশঙ্কায় ‘হাই অ্যালার্ট’ জারি

জঙ্গিরা হামলা চালাতে পারে বলে দেশটির গোয়েন্দা তথ্য রয়েছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধ যুদ্ধ অবস্থা বিরাজ করছে সাম্প্রতিক সময়। বিশেষ করে ভারতের এই আশংকা আরও বেশি। এবার দিল্লিতে হামলার আশঙ্কায় ‘হাই অ্যালার্ট’ জারি করা হয়েছে।

দিল্লিতে হামলার আশঙ্কায় ‘হাই অ্যালার্ট’ জারি 1

কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধ যুদ্ধ অবস্থা বিরাজ করছে সাম্প্রতিক সময়। বিশেষ করে ভারতের এই আশংকা আরও বেশি। এবার দিল্লিতে হামলার আশঙ্কায় ‘হাই অ্যালার্ট’ জারি করা হয়েছে।

কাশ্মীর ইস্যুতে জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় ভারতের রাজধানী দিল্লিতে এই হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে বলে সংবাদ মাধ্যমের খবরে উল্লেখ করা হয়েছে। জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখ যাতে করে পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হতে না পারে, সেই উদ্দেশ্যেই জঙ্গিরা হামলা চালাতে পারে বলে দেশটির গোয়েন্দা তথ্য রয়েছে। এমন আশঙ্কার পরিপ্রেক্ষিতে ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা আগামী ৭২ ঘণ্টার জন্য রাজধানী দিল্লিতে হাই অ্যালার্ট জারি করে। এই খবর দিয়েছে ইন্ডিয়া ট্যুডে।

সংবাদ মাধ্যমটির খবরে আরও বলা হয়, যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় সবক’টি নিরাপত্তা সংস্থাকে চূড়ান্ত সতর্ক থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বাড়ানো হয়েছে টহল এবং নজরদারি।

এই সতর্ক জারির মাত্র একদিন পর (আজ ৩১ অক্টোবর) কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হতে চলেছে জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখ। ওই ইস্যুতেই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের কাছে খবর রয়েছে যে, সরকারি এই প্রক্রিয়াটি ভেস্তে দেওয়ার জন্য ছক কষছে একাধিক জঙ্গি সংগঠন।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে যে, ওই দিন অর্থাৎ আজ ৩১ অক্টোবর বড়সড় হামলা চালাতে পারে জঙ্গি সংগঠনগুলো। গোয়েন্দাদের কাছে ‘ইনপুট’ এসেছে যে, জম্মু-কাশ্মীর ছাড়াও জঙ্গিদের হিট লিস্টে রয়েছে ভারতের রাজধানী দিল্লি। সরকারি দফতর এবং গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কঠোরভাবে এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। যাতে করে যে কোনো রকম হামলা প্রতিহত করা যায় সেই প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে বলে সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়।

উল্লেখ্য যে, কাশ্মীরের শায়ত্বশাসন উঠিয়ে নিয়ে সেখানে কেন্দ্রীয় শাসন জারি করেছে ভারত সরকার। দীর্ঘদিনের শায়ত্বশাসন উঠিয়ে নেওয়ার জন্য দেশটির কংগ্রেসে আইন পাস করা হয়েছে। আনুষ্ঠানিকভাবে আজ (৩১ অক্টোবর) কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হতে চলেছে জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখ। যে কারণে জঙ্গি সংগঠনগুলো এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নানা রকম ফন্দি আটছে। সেই কারণেই সতর্কতা জারি করা হয়েছে দেশটির রাজধানীতে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...