The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে আজ রাতে মাঠে নামছে বাংলাদেশ

আজ (৩ নভেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে এই কাঙ্খিত ম্যাচ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বাংলাদেশের ভারত মিশন শুরু হচ্ছে আজ টি-টোয়েন্টি ম্যাচের মাধ্যমে। পূর্বের তিক্ত অভিজ্ঞতা ভুলে সাম্প্রতিক পারফর্মেন্সে ভর করে ভারতকে রুখে দিতে বদ্ধ পরিকর টাইগাররা।

টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে আজ রাতে মাঠে নামছে বাংলাদেশ 1

আজ (৩ নভেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে এই কাঙ্খিত ম্যাচটি। বাংলাদেশের দুই মহারথি সাকিব-তামিমকে ছাড়াই শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে খেলতে নামছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। যে কারণে স্বভাবতই কঠিন পরীক্ষার সামনে উপনিত হয়েছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের নেতৃত্বাধীন টাইগাররা।

সিরিজটির ওপর অনেক কিছুই নির্ভর করছে। এই সিরিজে হেরে গেলে শ্রীলংকার মতো সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ম্যাচ হারের লজ্জায় পড়তে হবে টাইগারদের।

অপরদিকে গত ১ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে স্বাগতিকদের বিপক্ষে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে যায় সফরকারী শ্রীলংকা। তিন ম্যাচ সিরিজে অজিদের বিপক্ষে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার মধ্য দিয়ে সবচেয়ে বেশি ৬১ ম্যাচ হেরে বাংলাদেশকে (৫৮) লজ্জার রেকর্ড হতে মুক্তি দিয়েছিলো শ্রীলংকা।

অপরদিকে ওয়ানডেতে রোহিত শর্মাদের বিপক্ষে স্মৃতিটা সুখকর হলেও, টি-টোয়েন্টিতে মোটেও ভালো নয়। এর আগের দু’দলের ৮ দেখায় সবগুলো ম্যাচেই হেরে গিয়েছিলো বাংলাদেশ। মুশফিক-মাহমুদউল্লাহরা সেই পরাজয়ের বৃত্ত ভাঙবেন বলেই প্রত্যাশা করছেন টাইগার ভক্তরা।

ভারতের বিপক্ষে এই টি-টোয়েন্টি সিরিজকে সামনে রেখেই তিন বছর পর দলে ফেরানো হয়েছে আল-আমিন হোসেন এবং আরাফাত সানিকে। ঠিক তিন বছর পূর্বে এই ভারতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলার পর থেকেই জাতীয় দলের বাইরে ছিলেন এই দুই বোলার।

এবার ভারতের বিপক্ষেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার অপেক্ষায় রয়েছেন সানি এবং আল-আমিনরা। শুধু তাই নয়, আজ রবিবার ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হতে যাচ্ছে তরুণ ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ নাঈমের।

দিল্লীতে অনুষ্ঠিতব্য প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তামিমের অনুপস্থিতে ওপেনিংয়ে থাকছেন যথারীতি লিটন দাস এবং সৌম্য সরকার। ওয়ান ডাউনে মোহাম্মদ মিঠুন বা নামতে পারেন অভিষিক্ত মোহাম্মদ নাঈমও। এরপরের ৪টি পজিশনে থাকবেন যথাক্রমে মি. ডিপেন্ডেবল মুশফিক, অধিনায়ক রিয়াদ, মোসাদ্দেক এবং আফিফ হোসেন।

অপরদিকে বোলিংয়ে মোস্তাফিজের সঙ্গী থাকছেন আল-আমিন। তৃতীয় পেসার খেলালে বল হাতে দেখা যেতে পারে আবু হায়দার রনিকেও। অথবা আরাফাত সানির সঙ্গে দ্বিতীয় স্পিনার হিসেবে দেখা যেতে পারে আরেক বাঁহাতি স্পিনার তাইজুলকে। তবে রনিকে খেলানোর সম্ভাবনাই বেশি রয়েছে বলে সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়।

কেনোনা, সানির সঙ্গে স্পিনে হাত ঘোরাতে পারেন মোসাদ্দেক, আফিফ এবং অধিনায়ক নিজে। সেক্ষেত্রে স্পিনে পারদর্শী ভারতের বিপক্ষে আরেকজন বাড়তি স্পিনার নামানোর ঝুঁকি নেবে না বাংলাদেশ।

টি-টোয়েন্টি ম্যাচে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ:

লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ নাঈম/মোহাম্মদ মিঠুন, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, আরাফাত সানি, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মোস্তাফিজুর রহমান, আল-আমিন হোসেন ও আবু হায়দার রনি/ তাইজুল ইসলাম।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...