The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

redporn sex videos porn movies black cock girl in blue bikini blowjobs in pov and wanks off.

পুতুলের কণ্ঠে বিজয় দিবসে দেশাত্মবোধক গান

শ্রোতাপ্রিয় এই তারকা এবার দুটি দেশাত্মবোধক গানের রেকর্ডিং-এ অংশ নিয়েছেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী পুতুল। তিনি দেশের গান গাইতে সবসময়ই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। শ্রোতাপ্রিয় এই তারকা এবার দুটি দেশাত্মবোধক গানের রেকর্ডিং-এ অংশ নিয়েছেন। বিজয় দিবসে বাংলাদেশ টেলিভিশনের দুটি অনুষ্ঠানে প্রচার হবে গান দুটি। এই গান দুটির মধ্যে একটি হলো বিপুল ভট্টাচার্য্যের স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের গান ‘এই না বাংলাদেশের গান’ ও অপরটি হলো মৌসুমী ভৌমিকের ‘যশোহর রোড’।

পুতুলের কণ্ঠে বিজয় দিবসে দেশাত্মবোধক গান 1

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী পুতুল। তিনি দেশের গান গাইতে সবসময়ই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। শ্রোতাপ্রিয় এই তারকা এবার দুটি দেশাত্মবোধক গানের রেকর্ডিং-এ অংশ নিয়েছেন। বিজয় দিবসে বাংলাদেশ টেলিভিশনের দুটি অনুষ্ঠানে প্রচার হবে গান দুটি। এই গান দুটির মধ্যে একটি হলো বিপুল ভট্টাচার্য্যের স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের গান ‘এই না বাংলাদেশের গান’ ও অপরটি হলো মৌসুমী ভৌমিকের ‘যশোহর রোড’।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়, ইতিমধ্যেই পুতুল তিমির নন্দীর উপস্থাপনায় ‘হৃদি কল্লোল’ অনুষ্ঠানে দেশাত্মবোধক গানের রেকর্ডিং-এও অংশ নিয়েছেন। তাছাড়া মাহবুবা ফেরদৌসের প্রযোজনায় বিজয় দিবসের বিশেষ অনুষ্ঠান দেশাত্মবোধক গানের রেকর্ডিং-এও অংশ নেবেন পুতুল। গানগুলো বিজয় দিবসে বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারিত হবে বলে জানা যায়।

এই গান সম্পর্কে পুতুল সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, ‘আমার সৌভাগ্য যে নানাভাবে বেশ ক’টি দেশের মৌলিক গান করতে পেরেছি। যে গানগুলোর জন্য আমি সবসময়ই বেশ ভালো সাড়া পেয়েও থাকি। দেশের গান গাওয়ার মধ্যে এক অন্যরকম তৃপ্তি আমার মধ্যে কাজ করে। এখন পর্যন্ত আমি ৮/১০টি দেশের গান গেয়েছি। এটি সত্যিই আমার জন্য এক অন্যরকম ভালোলাগা। গানগুলোর সঙ্গে যারা সম্পৃক্ত তাদের প্রতি আমার আন্তরিক কৃতজ্ঞতা রইলো।’

উল্লেখ্য যে, ‘ক্লোজআপ ওয়ান-২০০৬’ প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে সংগীত জগতে পা রাখেন সাজিয়া সুলতানা পুতুল। বিভিন্ন মিশ্র অ্যালবামে গাওয়ার পাশাপাশি ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি একক গানও প্রকাশ করেছেন এই শিল্পী।

শ্রোতাপ্রিয় এই সংগীতশিল্পী গান গাওয়ার পাশাপাশি উপস্থাপনা এবং লেখালেখিও করে থাকেন। তার লেখা দুটি উপন্যাস হলো ‘একটি মনস্তাত্ত্বিক আত্মহনন ও তার পুতুলকাব্যিক প্রতিবেদন’ এবং ‘জ্যোৎস্নারাতে বনে যেভাবে আমাদের যাওয়া হয়ে ওঠে না’। তার এই উপন্যাস দুটিও পাঠকদের হৃদয়ে দাগ কেটেছে। তিনি বিভিন্ন ভাবে প্রশংসায় সিক্ত হয়েছেন। যে কারণে তিনি মননশীল কিছু করার জন্য সব সময় এগিয়ে আসেন।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...
sex không che
mms desi
wwwxxx