The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ভ্রমণ: ঘুরে আসুন সুন্দরবনের পুটনী দ্বীপ

পুটনী দ্বীপ বা পুটনী আইল্যান্ড। স্থানীয় বাসীন্দাদের কাছে এই দ্বীপের অন্য নাম দ্বীপচর

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সুন্দরবনের কথা আমরা সবাই জানি। তবে সুন্দরবনের এই পুটনী দ্বীপের কথা অনেকের অজানা। তাই আপনিও ঘুরে আসতে পারেন সুন্দরবনের পুটনী দ্বীপ হতে।

ভ্রমণ: ঘুরে আসুন সুন্দরবনের পুটনী দ্বীপ 1

খুলনা জেলার নৈসর্গিক প্রকৃতির শোভা সুন্দরবনে অবস্থিত একটি দ্বীপের নাম হলো এই পুটনী দ্বীপ বা পুটনী আইল্যান্ড। স্থানীয় বাসীন্দাদের কাছে এই দ্বীপের অন্য নাম দ্বীপচর। একপাশে দিগন্ত জোড়া সমুদ্র ও অন্যপাশে ঘন বনাঞ্চল এরই মধ্য দিয়ে রয়েছে সবুজ ঘাসের প্রান্তর ও আঁকাবাঁকা খাল। এক কথায় পুটনি আইল্যান্ড এক অপূর্ব স্থান। জোয়ার ভাটার সঙ্গে সঙ্গে পুরো এলাকা একেবারে ভাসমান অবস্থায় থাকে এবং আরেকবার অন্যরূপে দেখা যায় ধু ধু বালুচর। শেষ বিকেলের সূর্য এখানে অস্ত যায় আড়পাঙ্গাসিয়া নদী ও বঙ্গোপসাগরের মোহনায়।

হরিণ ও মাছের অভয়ারণ্য হওয়ার কারণে পুটনী দ্বীপে জেলে এবং সাধারণ মানুষের তেমন একটা আনাগোনা নেই। তবে আশেপাশের স্থানীয় অনেকেই কাকড়া আহরণ করতে পুটনী আইল্যান্ডে আসেন মাঝে মধ্যেই। এই দ্বীপের জঙ্গল এবং খালে হরিণ ও মাছের বিচরণ থাকলেও জানা যায় এখানে কোনো বাঘের উপদ্রবই নেই।

যাবেন কিভাবে

আপনাকে পুটনী দ্বীপে যেতে চাইলে অবশ্যই বন বিভাগের অনুমতি নিতে হবে। এক্ষেত্রে অনুমতির জন্য মংলা বন বিভাগের অফিস কিংবা হিরন পয়েন্টের বন বিভাগের অফিসে যোগাযোগ করতে হবে আপনাকে। অনুমতি নিয়ে বাগেরহাটের মংলা হতে ট্রলারে করে দুবলার চর বা হিরন পয়েন্ট হয়ে পুটনী দ্বীপ যেতে পারবেন আপনি।

থাকবেন কোথায়

পুটনী দ্বীপে রাত্রিযাপনের জন্যে কোনো রকম ব্যবস্থা নেই। ক্যাম্পিং করে থাকতে চাইলে জোয়ারের পানি পৌঁছাবেনা এমন স্থানে তাঁবু স্থাপন করতে হবে। এছাড়াও আপনি ইচ্ছে করলে ট্রলারেও থাকতে পারবেন। হিরণপয়েন্টের নীলকমল, টাইগার পয়েন্টের কচিখালী ও কাটকায় বন বিভাগের রেস্ট হাউজে পর্যটকদের থাকার ব্যবস্থাও রয়েছে।

খাবেন কোথায়

যদি মংলা হতে প্রয়োজনীয় কেনাকাটা করে নিতে পারেন তাহলে ট্রলারে কিংবা দ্বীপে খাওয়াদাওয়া নিয়ে আপনাকে মোটেও টেনশন করতে হবে না।

পুটনী দ্বীপ সম্পর্কে জরুরি কিছু পরামর্শ

# মূলত পুটনী দ্বীপে বড় লঞ্চে যাওয়া সম্ভব নয়, তাই বিকল্প না ভেবে আপনাকে ট্রলার ভাড়া করতে হবে।
# কম চলাচলের কারণে এই রুট অনেকেরই অজানা, তাই অভিজ্ঞ ও চেনা জানা চালক দেখে ট্রলার নিতে হবে আপনাকে।
# বর্ষাকালে পুটনী দ্বীপ ভ্রমণ পরিহার করাই হবে বুদ্ধিমানের কাজ।
# পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি এবং জরুরি প্রয়োজনীয় ঔষধ নিয়ে যাত্রা করতে হবে।

তথ্যসূত্র: https://vromonguide.com

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...