রেলওয়ে ২০০টি মিটারগেজ যাত্রীবাহী কোচ কেনার পরিকল্পনা : আরও আন্ত:নগর ট্রেন চালু হচ্ছে

ঢাকা টাইমস্‌ রিপোর্ট ॥ বাংলাদেশ রেলওয়ে শীঘ্রই ২০০টি মিটারগেজ যাত্রীবাহী কোচ কেনার পরিকল্পনা নিয়েছে। সাপ্লাইয়ার্স ক্রেডিট কর্মসূচির অধীনে এসব যাত্রীবাহী কোচ কেনা হবে বলে রেলওয়ের কর্মকর্তারা একথা জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ রেলওয়ের যুগ্ন মহাপরিচালকক (যান্ত্রিক) মোহাম্মদ শামসুজ্জামান বলেন, সাপ্লাইয়ার্স ক্রেডিট কর্মসূচির অথবা টেন্ডারর্স ফাইন্যান্সিং পদক্ষেপের অধীনে মিটারগেজ যাত্রীবাহী কোচ ক্রয়ের জন্য আমরা আন্তর্জাতিক দরপত্র আহ্বান করবো।

তিনি আরও বলেন, যাত্রীবাহী এসব কোন (মিটারগেজ) কেনার পর বাংলাদেশ রেলওয়ে বিভিন্ন রুটে আরও বেশি আন্ত:নগর ট্রেন চালুর মাধ্যমে অনেক বেশি সংখ্যক যাত্রী পরিবহনে সক্ষম হবে। শামসুজ্জামান বলেন, ভারত ব্যতিত যে কোন দেশ থেকে এসব কোচ নেয়া হবে। কারণ ভারত ইতোমধ্যেই মিটার গেজ কোচ নির্মাণ বন্ধ করে দিয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

কোচের মূল্য সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে রেলওয়ের যগ্ম মহাপরিচালক বলেন, দরপত্রে অংশগ্রহণকারী পার্টিগুলোর আগ্রহের ওপর প্রতিটি কোচের মূল্য নির্ভর করবে। তবে দরপত্রে সবচেয়ে কমমূল্য প্রদানকারী পার্টিকেই কাজ দেয়ার ক্ষেত্রে প্রাধান্য দেয়া হবে বলে তিনি জানান।

মিটারগগেজ লাইনের জন্য এ ২শ’টি কোচ ক্রয়ের ব্যাপারে সবুজ সংকেতের জন্য ইতিমধ্যে বাংলাদেশ রেলওয়ের পক্ষ থেকে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে চিঠি দেয়া হয়েছে বলেও যুগ্ম মহাপরিচালক জানান। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ রেলওয়ের সদর দফতর থেকে মিটারগেজ কোচ ছাড়াও ২২০টি ট্যাংক ওয়াগন ফ্লাট কনটেইনার এবং ১০ সেট মিটারগেজ ডিজেল ইলেক্ট্রিক মাল্টিপল ইউনিট অতি দ্রুত ক্রয়ের জন্য একটি প্রস্তাব পেশ করা হয়েছে।

এছাড়াও বাংলাদেশ রেলওয়ে ভারতীয় কোম্পানির সাথে বেশকিছু চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। বাংলাদেশকে ভারতের ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ প্রদানের আওতায় এসব চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়। এসব চুক্তির মধ্যে ৮১টি মিটারগেজ ওয়েল ট্যাংকার ক্রয়, ৩টি ব্রেক ভ্যান, ১৮০টি ব্রডগেজ ট্যাংক ওয়াগন, ৬টি কম্পার্টমেন্ট ব্রেকভ্যান এবং ১০টি ডিজেল ইঞ্জিন ক্রয়ের বিষয়টি রয়েছে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...