The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

৩০ লিটার মদ পান করে বেঁহুশ দুই হাতি

হঠাৎ করেই মদের গুদামে হানা দিয়েছিল ১৪টি হাতি

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ হঠাৎ করেই মদের গুদামে হানা দিয়েছিল ১৪টি হাতি। তবে তাদের মধ্যে দুটি বাড়াবাড়ি করে ফেলে। বাকি ১২টি হাতি যখন মদের গুদাম তছনছ করতে ব্যস্ত তখন দুই গজরাজ নিশ্চিন্তে মদ্যপান করে বেঁহুশ।

৩০ লিটার মদ পান করে বেঁহুশ দুই হাতি 1

হঠাৎ করেই মদের গুদামে হানা দিয়েছিল ১৪টি হাতি। তবে তাদের মধ্যে দুটি বাড়াবাড়ি করে ফেলে। বাকি ১২টি হাতি যখন মদের গুদাম তছনছ করতে ব্যস্ত তখন দুই গজরাজ নিশ্চিন্তে মদ্যপান করে বেঁহুশ।

ওই দুটি হাতি ঢক ঢক করে সাবার করে দেয় ৩০ লিটার মদ। ব্যস, এর পরই শুরু হয়ে যায় তাণ্ডব। তারপর দুই গজরাজ টালমাটাল অবস্থায় জঙ্গলের পথে পাড়ি দেয়। তবে ততোক্ষণে মদ্যপ অবস্থায় তাদের বেসামাল অবস্থা শুরু হয়। রাস্তার ধারে একটি চা বাগানে ঢুকে পড়ে ওই হাতিদের পাল। শুরু হয় বেদম তাণ্ডব। দুই গজরাজ এরপর একে অপরের সহায়ক হয়ে ওঠে। তবে তাতেও রক্ষে হল না শেষ পর্যন্ত। দুজনেই চা বাগানে ঘুমিয়ে পড়েছিলো। তার পর সেই ছবি ওঠে সিসিটিভি ফুটেজে।

দক্ষিণ পশ্চিম চীনের উনান প্রদেশের এক গ্রামের ঘটনা এটি। ১৪টি হাতি খাবারের খোঁজে আচমকা হানা দেয় মদ প্রস্তুতকারক একটি বাড়িতে। সেখানে গম হতে উৎপন্ন করা হচ্ছিল মদ। হাতিরা খাবার না পেয়ে ওই গুদাম তছনছ করে দিয়ে যায়। তবে ওই দুই গজরাজ ৩০ লিটার মদ পান করে ফেলেছিলো। দুই গজরাজের চা বাগানে শুয়ে থাকার ছবি তোলেন বিংবিং নামে জনৈক ট্র্যাভেল ফটোগ্রাফার। দুই হাতির মাটিতে শুয়ে ঘুমের ফটো ভাইরাল হয়ে গেছে। ৪০ হাজারের বেশি মানুষ সেই ছবিতে লাইকও করেছেন এ পর্যন্ত।

মেন্ধই গ্রামের প্রধান অবশ্য বলেছেন যে, ঘটনাটি গত বছর গ্রীষ্মকালের ঘটনা। তবে এতোদিন বাদে ছবিগুলি ভাইরাল হয়েছে। মেন্ধই গ্রামের প্রধান জানিয়েছেন, ১৪টি হাতি গুদামে তাণ্ডব চালায়নি। কেবলমাত্র ওই দুটি হাতি সব লন্ডভন্ড করে দিয়েছিলো। দিনের শেষে হাতিদের দল আবারও ফিরে যায় জঙ্গলে। ওই দুই গজরাজও টাল সামলায় কোনোমতে।

Loading...