The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বিয়ে পিছিয়ে দিয়ে ‘করোনাযুদ্ধে’ নামলেন এক নারী চিকিৎসক!

ভারতের কেরালার কুন্নুরে কর্মরত চিকিৎসক সাফি মোহাম্মেদের

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ করোনা ভাইরাস আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। ইতিমধ্যেই ভারতেও আক্রান্ত হয়েছেন কয়েকশ মানুষ। এমন অবস্থায় গত রবিবার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। বিয়ে পিছিয়ে ‘করোনাযুদ্ধে’ নামলেন ওই নারী চিকিৎসক!

বিয়ে পিছিয়ে দিয়ে ‘করোনাযুদ্ধে’ নামলেন এক নারী চিকিৎসক! 1

ভারতের কেরালার কুন্নুরে কর্মরত চিকিৎসক সাফি মোহাম্মেদের। তবে করোনা রোগীদের সেবা করার জন্যই বিয়েটা পিছিয়ে চিকিৎসা সেবায় নেমে পড়লেন তিনি।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দুবাইয়ের এক ব্যবস্যায়ীর সঙ্গে গত রবিবার কেরালার চিকিৎসক সাফি মোহাম্মেদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। তবে তিনি সেই বিয়ের দিনটি পিছিয়ে দিয়েছেন। কারণ হলো দেশের এই পরিস্থিতির মধ্যে বিয়ে করা মানে তার কাছে বিলাসিতা ছাড়া অন্য কিছুই নয়। তাই বিয়েটা পিছিয়ে পুরো দিনটাই কাটালেন হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে করোনা রোগীর সেবায়।

ওই দিন সাফির হবু স্বামীও বিয়ের জন্য তৈরিই ছিলেন। তবে কনে বলে দিলেন, এখন আর বিয়ে হবে না। আগে দেশের অবস্থা ভালো হোক। আপাতত চিকিৎসক হিসেবেই কাজ করতে চান তিনি।

তবে এই নিয়ে বিশেষ কথা বলতে চান নি সাফি। তিনি বলেছেন, ‘দেখুন বিয়ের জন্য অপেক্ষা করা যায়, অসুস্থ হয়ে যারা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন, তারাতো অপেক্ষা করতে পারবেন না। তাই আমি আমার কর্তব্য পালন করছিমাত্র। এর বাইরে আর কিছুই নয়। এটা নিযে এতো আলোচনার করার কোনো প্রয়োজন নেই। ’

রবিবার বিয়ের পোশাকে থাকার কথা ছিল তার। তেব সেদিনই তিনি হাসপাতালে পরে আছেন পিপিই। সাফি বলেন, ‘‌বন্ধুরা এই নিয়ে ইয়ারকিও মারছে। বাড়ির লোকেরাও হাসি ঠাট্টা করেছে। তবে সবার মানসিক সমর্থন ছাড়া আমি এই সিদ্ধান্ত নিতে পারতাম না কখনও। মা-বাবা, আমার কথায় একবারে রাজি হয়ে গিয়েছেন। আমার হবু স্বামীও রাজি হয়েছেন একবারে। আমি তাদের কাছে সত্যিই কৃতজ্ঞ।’

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...