The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

সৌদি বাদশাহ-যুবরাজ করোনার ভয়ে রাজপ্রাসাদ ছাড়লেন

আক্রান্তদের মধ্যে রয়েছেন রাজপরিবারের শীর্ষ সদস্য রিয়াদের গভর্নর প্রিন্স ফয়সাল বিন বান্দর বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে রাজপ্রাসাদ ছেড়ে জেদ্দায় নতুন ভবনে চলে গেছেন সৌদি বাদশাহ সালমান। এ ছাড়াও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানও নিজ বাসভবন ছেড়ে চলে গেছেন দূরবর্তী এক এলাকায়।

সৌদি বাদশাহ-যুবরাজ করোনার ভয়ে রাজপ্রাসাদ ছাড়লেন 1

নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, সৌদি রাজপরিবারের অন্তত দেড়শ সদস্য নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। যাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন সম্প্রতি ইউরোপ ভ্রমণ করেন। এ ছাড়াও রাজপরিবারের আরও বেশ কয়েকজনের মধ্যেও করোনা উপসর্গ দেখা দিয়েছে।

রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ সূত্রে মার্কিন সংবাদমাধ্যমটি আরও জানায়, আক্রান্তদের মধ্যে রয়েছেন রাজপরিবারের শীর্ষ সদস্য রিয়াদের গভর্নর প্রিন্স ফয়সাল বিন বান্দর বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদও। তিনি বর্তমানে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রয়েছেন। রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ দুজন সদস্য এই তথ্য জানিয়েছেন।

৮৪ বছর বয়সী বাদশাহ সালমান নিজের সুরক্ষার জন্য রাজপরিবার ছেড়ে জেদ্দায় চলে গেছেন। লোহিত সাগর উপকূলীয় শহরটির কাছে একটি আইল্যান্ড প্যালেসে অবস্থান করছেন তিনি।

৩৪ বছর বয়সী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানও জেদ্দার এক প্রত্যন্ত এলাকায় চলে গেছেন। যেখানে ইতিমধ্যেই তিনি ‘নিওম’ নামে একটি ভবিষ্যত নগরী গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি দেন। সৌদি সরকারের মন্ত্রিসভার সদস্যরাও দূরবর্তী এলাকায় চলে গিয়েছেন বলে রাজপরিবার সূত্র জানিয়েছে।

৬ সপ্তাহ পূর্বে দেশটিতে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী ধরা পড়ে। ইরান হতে বাহরাইন হয়ে আসা এক ব্যক্তির শরীরে প্রথম এই ভাইরাসটি শনাক্ত হয়। এখন সৌদি আরবে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৩ হাজারের মতো। ইতিমধ্যেই মারা গেছেন ৪১ জন।

এদিকে ‘ভিআইপিদের’ জন্য প্রস্তুত থাকতে মঙ্গলবার রাতে শীর্ষ চিকিৎসকদের প্রতি একটি নির্দেশনা পাঠানো হয়। ওই নির্দেশনার এক কপি পেয়েছে নিউইয়র্ক টাইমস। রাজপরিবারের চিকিৎসার তদারকিতে থাকা কিং ফয়সাল হাসপাতাল এই সতর্কতা পাঠিয়েছে দেশটির শীর্ষ স্বাস্থ্য বিশেজ্ঞদের নিকটে।

নির্দেশনায় বলা হয়, আমরা জানি না কত আক্রান্ত রোগী আমরা পাবো, তবে আমাদের ‘সর্বোচ্চ প্রস্তুত’ থাকতে হবে। এ ছাড়াও রাজপরিবারের কোনো কর্মী অসুস্থ হলে তাকে তৎক্ষণাত অন্য হাসপাতালে সরিয়ে নিতে হবে, কিং ফয়সাল হাসপাতাল প্রস্তুত রাখতে হবে শুধু রাজপরিবারের সদস্যদের জন্যই।

সূত্র জানিয়েছে, সন্দেহভাজন করোনায় আক্রান্ত রাজপরিবারের সদস্যদের চিকিৎসার জন্য নির্ধারিত অভিজাত হাসপাতালটিতে অতিরিক্ত ৫০০টি শয্যা প্রস্তুত করতে ব্যস্ততম সময় পার করছেন দেশটির চিকিৎসকরা।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...