The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

করোনা নিয়ন্ত্রণে সফল স্পেন: একদিনে মাত্র ২ মৃত্যু!

ভাইরাসটির বিস্তার ব্যাপক বৃদ্ধি পেলে একসময় ইতালিকেও ছাড়িয়ে আক্রান্তে শীর্ষস্থানে চলে যায় স্পেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ চীনে প্রাদুর্ভাব শুরু হলেও সংক্রমণের শুরুর দিকে মহামারি নভেল করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে বিপর্যস্ত দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষে ছিলো স্পেন। এখন করোনা নিয়ন্ত্রণে সফল স্পেন।একদিনে মাত্র ২ মৃত্যু ঘটেছে!

করোনা নিয়ন্ত্রণে সফল স্পেন: একদিনে মাত্র ২ মৃত্যু! 1

ভাইরাসটির বিস্তার ব্যাপক বৃদ্ধি পেলে একসময় ইতালিকেও ছাড়িয়ে আক্রান্তে শীর্ষস্থানে চলে যায় স্পেন। তবে সাম্প্রতিক সময় স্পেন থেকে আশার খবরও শোনা যাচ্ছে।

স্পেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় শুক্রবার করোনা নিয়ে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে জানিয়েছেন যে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশজুড়ে নতুন করে করোনা ভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ আক্রান্ত মাত্র দুইজন রোগী মারা গেছেন। যা দেশটিতে করোনার প্রাদুর্ভাব শুরুর পর সর্বনিম্ন বলা যায়। ধারণা করা হচ্ছে যে, মহামারি করোনাকে পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে এনেছে স্পেন।

সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী, নতুন দুজনসহ গোটা দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মোট মৃতের সংখ্যা এখন ২৭ হাজার ১২১ জন। কিছুদিন আগেও স্পেনে যেখানে প্রতিদিন প্রায় এক হাজার পর্যন্ত মানুষের মৃত্যু ঘটছিলো সেখানে গত সাতদিনে দেশটিতে ‌‘মাত্র’ ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনা ভাইরাসে।

২ লাখ ৮৫ হাজারের বেশি শনাক্ত নিয়ে বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তে স্পেনের অবস্থান চতুর্থ হলেও দেশটিতে ১ লাখ ৯৭ হাজারের বেশি রোগী বর্তমানে সুস্থ। ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব শুরুর পর টানা দুই মাসের লকডাউনসহ অন্যান্য কঠোর পদক্ষেপকে এই সফলার নেপথ্য শক্তি হিসেবে বিবেচনায় আনা হচ্ছে।

তবে দেশটির সরকার সতর্ক করে দিয়েছে যে, এই নিয়ে আত্মতুষ্টিতে ভোগার কিছুই নেই। যে কোনো সময় করোনার আবারও বিস্তার ঘটতে পারে। যদি সঠিকভাবে স্বাস্থ্যবিধি এবং সামাজিক দূরত্ববিধি সহ অন্যান্য সতর্কতা অবলম্বন করা না হয় তাহলে দ্বিতীয় দফায় সংক্রমণ আবার শুরু হওয়ার ঝুঁকি সৃষ্টি হতে পারে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...