The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

২ হাতির নামে ৫ কোটি রুপির সম্পত্তি!

কয়েক বছর পূর্বে এই দুই পোষ্যের মধ্যে একটি হাতি ওই ব্যক্তির প্রাণ বাঁচাই

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ হাতি নিয়ে বেশ কয়েকটি চাঞ্চল্যকর খবরে মধ্যে আজও রয়েছে আরও দুটি হাতির কথা। ২ হাতির নামে করা হয়েছে ৫ কোটি রুপির সম্পত্তি!

২ হাতির নামে ৫ কোটি রুপির সম্পত্তি! 1

এক ব্যক্তি নিজের সম্পত্তির অর্ধেকটা লিখে দিলেন নিজের পোষ্য দুটি হাতির নামে! কয়েক বছর পূর্বে এই দুই পোষ্যের মধ্যে একটি হাতি ওই ব্যক্তির প্রাণ বাঁচাই। তারই কৃতজ্ঞতা স্বরূপ ভারতের বিহার রাজ্যের বাসিন্দা আখতার ইমাম তার দুই পোষ্যের নামেই ৫ কোটি রুপির সম্পত্তি লিখে দেন।

জানা গেছে, ৫০ বছর বয়সী আখতার ইমাম থাকেন পাটনার কাছে ফুলওয়ারি শরিফের জানিপুর এলাকাতে। নিজের যখন মাত্র ১২ বছর বয়স তখন হতেই এই দুইটি হাতিকে লালনপালন করে আসছিলেন তিনি। বর্তমানে এক হাতি মোতির বয়স ২০ ও অপর হাতি রানির বয়স ১৫ বছর। বড় যত্নের সঙ্গে লালনপালন করেন এদেরকে। তার বাড়িতেই রাখছেন ওই দুই হাতিটিকে।

আখতার ইমাম জানিয়েছেন, ‘পারিবারিক সূত্রে আমি কয়েকটি হাতি পায়। মোতি ও রানি হলো তাদেরই বংশধর। আমার ছোটবেলা হতেই ওরা এই বাড়িতেই রয়েছে। মোতি ও রানি আমার পরিবারের সদস্যের মতোই, তাদের ছাড়া আমি কখনও বাঁচার কল্পনাও করতে পারি না। আমি আমার সম্পত্তির অর্ধেক স্ত্রী ও বাকি অর্ধেকটা (৫ কোটি রুপি) সম্পত্তি মোতি ও রানিকে দান করেছি।’

‘এশিয়ান এলিফ্যান্ট রিহ্যাবিলিটেশন অ্যান্ড ওয়াইল্ডলাইফ অ্যানিম্যাল ট্রাস্ট’ নামে একটি বেসরকারি সংস্থার প্রধান হলেন আখতার ইমাম। তিনি জানিয়েছেন, একদিন আমাকে হত্যার একটা প্রচেষ্টা হয়। ঠিক সেই সময় এই হাতিই আমার প্রাণ বাঁচিয়েছে। যখন কয়েকজন অস্ত্রধারী আমার ঘরে ঢুকে পড়ার চেষ্টা করেছিলো, তখনই হাতি প্রচণ্ড গর্জন করতে শুরু করে। তখন আমি জেগে যাই ও চিৎকার শুরু করে দিই। যে কারণে দুর্বৃত্তরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়।

আখতার আরও বলেন, প্রাণীরা একেবারেই মানুষের মতো নয়, তারা খুবই বিশ্বস্ত হয়ে থাকে। আমি বহু বছর ধরেই হাতি সংরক্ষণের ব্যাপারে কাজ করে যাচ্ছি। আমি চাই না, আমার মৃত্যুর পর আমার হাতি দুটি এতিম হয়ে যাক।

দুঃখের সঙ্গে আখতার জানিয়েছেন, পারিবারিক বিবাদের কারণে তার স্ত্রী ও পুত্র গত ১০ বছর ধরে পৃথকভাবে বসবাস করে। হাতি দুটিকে নিজের সম্পত্তি লিখে দেওয়ার পরই তার ছেলে মেরাজ তাকে হুমকিও দেয়। তাছাড়াও, পশুপাচারকারীদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে মোতি ও রানিকে একবার বিক্রিও করে দিতে চেয়েছিলো তারই ছেলে। যদিও সে তার আগেই ধরা পড়ে যায়। তাই বাধ্য হয়েই নিজের জীবনহানির আশঙ্কায় বিহারের প্রধান বনপাল এবং পাটনার পুলিশ সুপারকে চিঠিও দিয়েছেন আখতার ইমাম।

হাতির সম্পত্তি ‘উইল’ করে দিয়েছেন আখতার ইমাম। সেই উইলে উল্লেখ করেছেন যে, হাতি দুইটির মৃত্যুর পর তাদের নামে লিখে দেওয়া ওই অর্থে’র মালিক হবেন ‘এশিয়ান এলিফ্যান্ট রিহ্যাবিলিটেশন অ্যান্ড ওয়াইল্ডলাইফ অ্যানিম্যাল ট্রাস্ট’।

তথ্যসূত্র: একুশে টেলিভিশন

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...