The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

হঠাৎ পেওনিয়ার বন্ধ হওয়ায় বিপাকে ফ্রিল্যান্সাররা

বিপাকে পড়েছেন অনলাইনে কাজ করে পারিশ্রমিকের টাকা হাতে পাওয়ার ক্ষেত্রে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পেওনিয়ার প্রিপেইড কার্ডের কার্যক্রম হঠাৎ করে বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন হাজার হাজার ফ্রিল্যান্সার ও অনলাইন সেলার।

হঠাৎ পেওনিয়ার বন্ধ হওয়ায় বিপাকে ফ্রিল্যান্সাররা 1

বিশেষ করে দেশে যারা ফাইবার ব্যবহার করেন তাদের সকলেই বিপাকে পড়েছেন অনলাইনে কাজ করে পারিশ্রমিকের টাকা হাতে পাওয়ার ক্ষেত্রে। একই বিড়ম্বনায় রয়েছেন আপওয়ার্কে কাজ করে যারা পেওনিয়ার কার্ডে আয়ের টাকা দেশেও আনেন তারা।

পেয়নিয়ারের পেমেন্ট গেটওয়েসেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান জার্মানির ওয়্যারকার্ড সলিউশন লিমিটেডের সবধরনের আর্থিক কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়ায় শুক্রবার হতে আনুষ্ঠানিক ভাবে এই সমস্যা শুরু হয়। সমস্যাটি গত সপ্তাহ থেকেই শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন আপওয়ার্কে কাজ করা ফ্রিল্যান্সাররা।

তারা জানিয়েছেন, গত সপ্তাহ হতেই তিনি এই বিড়ম্বনার সম্মুখীন হচ্ছেন। নিরাপত্তার কথা বলে এখনতো আনুষ্ঠানিক ভাবেই বিশ্বজুড়ে সেবাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তবে সমস্যার তীব্রতর বোঝা যাচ্ছে এই সমস্যা খুব সহসাই সমাধান হবে না।

ব্যবহারকারীরা বলেন, যারা গ্রাহক ও মার্কেটপ্লেস হতে প্রিপেইড কার্ডে টাকা নিতেন, তারা কার্ডে টাকা নিতেই পারছেন না। কার্ড ইউজারদের সবকিছুই ফ্রিজ করে দেওয়া হয়েছে। এতে সবচেয়ে বেশি সমস্যা হচ্ছে সাবসক্রিপশন সেবা নেওয়ার ক্ষেত্রে। কার্ডের মাধ্যমে যাবতীয় কার্যক্রম অনলাইন সেবা নেওয়ার ক্ষেত্রে বড় সমস্যা দেখা দিয়েছে। আবার অনেকের টাকা আটকেও গেছে।

অবশ্য পেওনিয়ার বলেছে যে, প্রিপেইড কার্ড ব্যবহারকারীরা সাময়িকভাবে অর্থ উত্তোলন কিংবা নতুন কোনো পেমেন্ট নিতে না পারলেও পেওনিয়ারের কাছে থাকা অধিকাংশ অর্থের ওপর কোনোই প্রভাব পড়বে না। পেওনিয়ার এই বিষয়ে অন্যান্য অপশন যুক্ত করার কাজ অব্যাহত রয়েছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...