The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ভারত করোনা চিকিৎসায় ব্যবহার করছে চর্মরোগের ইনজেকশন

চিকিৎসকদের পরামর্শে কেবলমাত্র অতি সংকটজনক কোভিড-১৯ রোগীদের ক্ষেত্রে চর্মরোগ সোরিয়াসিসের চিকিৎসায় ব্যবহৃত ড্রাগ ইটোলিজুমাব ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে দেশটির ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ করোনা চিকিৎসার নিয়ে নানা কথা বিভিন্ন সময় শোনা যাচ্ছে। শোনা যাচ্ছে ভারত করোনা চিকিৎসায় ব্যবহার করছে চর্মরোগের ইনজেকশন।

ভারত করোনা চিকিৎসায় ব্যবহার করছে চর্মরোগের ইনজেকশন 1

চিকিৎসকদের পরামর্শে কেবলমাত্র অতি সংকটজনক কোভিড-১৯ রোগীদের ক্ষেত্রে চর্মরোগ সোরিয়াসিসের চিকিৎসায় ব্যবহৃত ড্রাগ ইটোলিজুমাব ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে দেশটির ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

তীব্র শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভোগা করোনা রোগীদের চিকিৎসায় ‘জরুরি অবস্থায় এই ওষুধটির পরিমিত ব্যবহার’ করা যেতে পারে বলে মত দিয়েছেন ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া। তথ্য এনডিটিভির।

করোনা চিকিৎসায় কিছু ওষুধের পরীক্ষামূলক ব্যবহারের কথা বিবেচনা করেই ভারতের ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল ডা. ভিজি সোমানি ইটোলিজুমাব ওষুধটি ব্যবহারে পরামর্শ দিয়েছেন।

বায়োকন সংস্থার অনুমোদিত ওই ড্রাগটি প্রবল শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভোগা কোভিড রোগীদের চিকিৎসায় ব্যবহার করা যেতে পারে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এই বিষয়ে দেশটির একজন চিকিৎসা বিশেষজ্ঞ সংবাদসংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন যে, ‘কোভিড-১৯ রোগীর ওপর এটির পরীক্ষামূলক ব্যবহারে সাফল্য মেলার পরই এই অনুমোদন দেওয়া হয়। সাইটোকিন রিলিজ সিন্ড্রোমের চিকিৎসার জন্য এই ওষুধের ব্যবহার সন্তোজনক ফল দিয়েছে বলে জানিয়েছে এইমসের পালমনোলোজিস্ট, ফার্মাকোলজিস্ট ও চিকিৎসা বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে গঠিত একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি।’

তিনি আরও জানিয়েছেন যে, গত কয়েক বছর ধরে সোরিয়াসিসের চিকিৎসার জন্য বায়োকনের তৈরি এই ওষুধটি ব্যবহার হয়ে আসছে।

তবে এই ওষুধটি প্রয়োগের আগে চিকিৎসকদের বা চিকিৎসা সংস্থাকে প্রতিটি রোগীর থেকে লিখিত সম্মতি নিতে হবে বলেও জানানো হয়েছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...