The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

করোনা রোগী এবার হাসপাতালেই বিয়ে করলেন! [ভিডিও]

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের যুগল কার্লোস মুনিজ ও গ্রেস লেম্যান

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ দীর্ঘদিনের পরিকল্পনা ভেস্তে যেতে বসেছিলো করোনার কারণে। কারণ করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে তিনি ভর্তি। তবে হাসপাতালে থাকলেও তার সেই ইচ্ছে অপূর্ণ রইলো না। হাসপাতালেই বিয়ে হলো!

করোনা রোগী এবার হাসপাতালেই বিয়ে করলেন! [ভিডিও] 1

এ বছরের জুলাইয়ের মাঝামাঝি সময় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার কথা ছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের যুগল কার্লোস মুনিজ ও গ্রেস লেম্যানের। তবে মুনিজ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় তাদের বিয়ের সেই পরিকল্পনা ভেস্তে যায়। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর তার অবস্থার কোনো উন্নতিই হয়নি, একসময় তিনি চলে যান আইসিইউতে।

এমন পরিস্থিতিতে স্বাভাবিকভাবেই বিয়ের কথা হয়তো কেও চিন্তাও করেননি। তবে এই অসম্ভব বিষয়টি সম্ভব করেছেন মুনিজ-ও গ্রেস। গত ১১ আগস্ট এই দম্পতি সামাজিক দূরত্ব মেনেই বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সেরে ফেললেন বলে খবর প্রকাশ করেছে সিএনএন।

কার্লোসের মানসিক প্রশান্তি বৃদ্ধির জন্য তাকে বিয়ে করে ফেলার পরামর্শ দিয়েছিলেন হাসপাতালের এক নার্স। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার সব দায়িত্বও নিজেদের কাঁধেই তুলে নেন হাসপাতালের কর্মীরা। স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে যেভাবে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল, সেভাবে না হলেও যতোটা সম্ভব আয়োজন করেছেন ওই হাসপাতাল কর্মীরা।

পরে চিকিৎসকের অনুমতি নিয়ে হাসপাতালে কনে সেজে হাজির হন গ্রেস। হাসপাতালেই বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হয়। এই সময় স্বাস্থ্যবিধি মেনে নব দম্পতিকে শুভেচ্ছাও জানান হাসপাতালের কর্মীরা।

করোনার আক্রমণে মুনিজের ফুসফুস বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। হাসপাতালের ওই নার্স বলেছেন, আমি যখন মুনিজকে বিয়ের পরামর্শ দিই, তখন এটি থেরাপির অংশ হিসেবেই পরামর্শ দিয়েছিলাম। যাতে করে সে ভালো অনুভব করে ও মানসিক শক্তি ফিরে পায়।

তিনি আরও জানান, শারীরিক অবস্থার অবনতির সময় গ্রেস সার্বক্ষণিক মুনিজের পাশেই ছিলেন, তাকে সাহসও যুগিয়েছেন তিনি।

দেখুন ভিডিওটি

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...