The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

১০ মিনিটেও গলে না এমন এক আইসক্রিম বানালো জাপান! [ভিডিও]

জাপানের টোকিও শহরে গ্রীষ্মকালে আইসক্রিম হাতে দাঁড়িয়ে রয়েছেন, অথচ আইসক্রিম যেমনটা ছিল ঠিক তেমনই রয়ে গেছে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ জাপানের টোকিও শহরে গ্রীষ্মকালে আইসক্রিম হাতে দাঁড়িয়ে রয়েছেন, অথচ আইসক্রিম যেমনটা ছিল ঠিক তেমনই রয়ে গেছে! এই দৃশ্য কী কখনও কল্পনা করা যায়? তবে বাস্তবে তাই দেখা যায়!

১০ মিনিটেও গলে না এমন এক আইসক্রিম বানালো জাপান! [ভিডিও] 1

জাপানি একটি প্রতিষ্ঠান ‘কানাজাওয়া’ তাদের বিজ্ঞাপনে দাবি করেছে যে, তাদের তৈরি করা ডিজাইনফুল আইসক্রিম ১০ মিনিটেও গলবে না।

বিষয়টি সত্যি কিনা পরীক্ষার জন্য অনেক বিদেশী সাংবাদিক হাজির হন কানাজাওয়ার আইস শপের সামনে। তারা ঠিক ভর দুপুরে, যখন সূর্য মধ্যগগণ হতে তার সর্বোচ্চ তাপ ছড়ায়, ঠিক তখন একটি আইসক্রিম কিনে দাঁড়িয়ে যান রোদের মধ্যে। পুতুলের নকশা করা সেই আইসক্রিম ১০ মিনিট বাদেও প্রায় অবিকলই থেকে যায়! শুধুমাত্র সেই আইসক্রিমের পুতুলের কানের ধারে হালকা একটু গলন দেখা গিয়েছিলো!

কিভাবে এটি সম্ভব? তাহলে কী এটি জাদু? এই বিষয়ে কানাজাওয়া জানিয়েছে, এটি জাদুর মতো কিছু নয়, বিজ্ঞান মেনেই এটি করা সম্ভব হয়েছে। তাই সুস্বাদু আইসক্রিম প্রিয়জনকে খাওয়াতে আইসক্রিম পার্লারে নেওয়ার কোনোই দরকার নেই। বা দরকার নেই তাড়াহুড়ো করে ঘরে ফেরারও।

কানাজাওয়া’র প্রযুক্তি যদি সত্যিই অনুসরণ করা যায়, তাহলে হয়তো সকল দেশেই এমন চমৎকার আইসক্রিম পাওয়া সম্ভব হবে। কানাজাওয়া জানিয়েছে, তাদের আইসক্রিমে পলিফেনল নামক তরল নির্জাস ব্যবহার করা হয়েছে যা সংগ্রহ করা হয় স্ট্রবেরি হতে। এই পলিফেনল আইসক্রিমকে অনেকক্ষণ শক্ত রাখে। এটি আইসক্রিমের পানি ও তেল পৃথক হতে দেয় না খুব সহজে। যে কারণে সাধারণ আইসক্রিমের তুলনায় কানাজাওয়ার আইসক্রিম দীর্ঘ সময় ধরে টিকে থাকে। আবার এর স্বাদও হয় চমৎকার।

তবে নতুন এই প্রযুক্তির আইসক্রিম আপনাকে খেতে চাইলে যেতে হবে জাপানের টকিওতে। কারণ জাপানের ওই প্রতিষ্ঠানটি ছাড়া এখন পর্যন্ত এই প্রযুক্তিতে অন্য কোনো আইসক্রিম উৎপাদক প্রতিষ্ঠান তাদের আইসক্রিম তৈরিই করেননি।

দেখুন ভিডিওটি

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...