The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত সুবর্ণ আইজ্যাক বারী বিশ্বের সবচেয়ে কমবয়সী অধ্যাপক!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত বালক সুবর্ণ আইজ্যাক বারী ‘বিস্ময় বালক’ হিসেবে খ্যাতি পেয়েছেন। তিনি হয়েছেন বিশ্বের সবচেয়ে কমবয়সী অধ্যাপক!

বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত সুবর্ণ আইজ্যাক বারী বিশ্বের সবচেয়ে কমবয়সী অধ্যাপক! 1

তিনি গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, সন্ত্রাসবিরোধী ক্যাম্পেইন ও নিজের লেখা ‘দ্য লাভ’ গ্রন্থের মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে চাইল্ড প্রডিজি হিসেবে পরিচিত পেয়েছেন। এই কীর্তি তাকে নিয়ে গেছে এক অনন্য উচ্চতায়। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন অধ্যাপক হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছেন সুবর্ণ আইজ্যাক বারী।

বিশ্বের সবচেয়ে কম বয়সী এই অধ্যাপককে বিশেষ সম্মাননা জানিয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো। সকল নিউইয়র্কবাসীদের পক্ষ হতে তাকে সম্মাননা জানিয়ে কুমো বলেছেন যে, ‘সুবর্ণ এমন একজন ব্যক্তি, যিনি এতো কম বয়সেই বিশ্বে ইতিবাচক পার্থক্য তৈরি করেছেন। গণিত এবং পদার্থবিজ্ঞানের মাধ্যমে, সন্ত্রাসবিরোধী ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে, বইয়ের মাধ্যমে তিনি বিশ্বজুড়ে চাইল্ড প্রডিজি হিসেবে পরিচিত। গণিত এবং পদার্থবিজ্ঞানে আপনার অর্জন প্রশংসার দাবি রাখে। একজন বিজ্ঞানী হিসেবে বিশ্বের বর্তমান ঘটনা সম্পর্কে তার বিস্ময়কর সচেতনতা ও বিশ্ব শান্তি প্রচারের জন্য সেই সচেতনতা ব্যবহার করার ইচ্ছা আমাকে সত্যিই মুগ্ধ করে।’

কুমো সুবর্ণকে উদ্দেশ্যে করে আরও বলেছেন, ‘ভ্রাতৃত্ব, প্রজ্ঞা এবং সহানুভূতির মধ্যদিয়ে আপনি নিজেকে গভীর চরিত্র ও মূল্যবোধের সিঁড়ি হিসেবে পৃথক করেছেন। আপনার কাজের জন্য নিউইয়র্কের পক্ষ থেকে আপনাকে সম্মানিত করতে পেরে আমিও গর্বিত।’

সুবর্ণকে দেওয়া সম্মাননার স্বীকৃতিপত্রে নিউইয়র্ক গভর্নর লিখেছেন যে, সব নিউইয়র্কবাসীর পক্ষ হতে আমি আপনার প্রশংসা করছি। কারণ হলো, ‘দ্য লাভ’ গ্রন্থের মাধ্যমে আপনি সব ধর্মের মধ্যে সম্প্রীতি ও সহনশীলতা জাগানোর ক্ষেত্রে এক অগ্রগতি এনে দিয়েছেন। অভিনন্দন এবং অব্যাহত সাফল্য ও সুখের জন্য শুভকামনা রইলো।

বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত সুবর্ণ আইজ্যাক বারী বিশ্বের সবচেয়ে কমবয়সী অধ্যাপক! 2

গত ১৭ অক্টোবর গভর্নরের পক্ষ হতে সাড়ে ৮ বছর বয়সী বিজ্ঞানী সুবর্ণ আইজ্যাক বারীকে স্বীকৃতিপত্রটি দেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় তাকে ২০১৮ সালে স্বীকৃতি দেয় বিজ্ঞানী হিসেবে। নোবেল বিজয়ী কৈলাশ সত্যার্থীও তাকে দিল্লিতে ‘গ্লোবাল চাইল্ড প্রডিজি অ্যাওয়ার্ড’ দেন বিজ্ঞানী হিসেবে। পদার্থবিজ্ঞানী হিসেবে সুবর্ণকে ভিজিটিং অধ্যাপক পদে নিয়োগও দিয়েছে মুম্বাই বিশ্ববিদ্যালয়।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ৯ এপ্রিল নিউইয়র্কে জন্মগ্রহণ করেন সুবর্ণ আইজ্যাক বারী। পিএইচডি স্তরের গণিত, পদার্থবিজ্ঞান এবং রসায়নের সমস্যাগুলো সমাধান করতে সক্ষম হওয়ায় খুব অল্প বয়সেই বিশ্বে তার খ্যাতি ছড়িয়ে পড়ে। তার অভিভাবক জানিয়েছেন, নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু ক্যুমো তার প্রতিনিধিদল মারফত সম্মাননা স্বীকৃতিপত্রটি তাদের বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন। সুবর্ণকে গভর্নরের সঙ্গে দেখা করার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...