The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

মুহাম্মদ (সা.)-কে অবমাননা: এবার ম্যাক্রোঁর নিন্দায় সরব খ্রিস্টানরাও

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ গত বুধবার ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ এক বক্তব্যে বলেন, হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর‘কার্টুন প্রকাশ থেকে ফ্রান্স কখনও বিরত থাকবে না।’ তার বক্তব্য প্রকাশের পর হতে বিশ্বের মুসলিমরা প্রতিবাদ শুরু করে।

মুহাম্মদ (সা.)-কে অবমাননা: এবার ম্যাক্রোঁর নিন্দায় সরব খ্রিস্টানরাও 1

বিশ্বের অনেক মুসলিম দেশের স্থানীয় বাজার ফরাসি পণ্য বয়কট শুরু করেছে। ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের কয়েকটি উঁচু উঁচু দালানে বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ হতে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর বিরত না থাকার বক্তব্যের প্রতিবাদে এবার আরব খ্রিস্টানরাও সরব হলেন।

কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরার লেবানন প্রতিনিধি জালাল শহদা এক টুইট বার্তায় বলেছেন, ‘আমি জালাল শাহদা। আমি একজন আরব খ্রিস্টান। হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর অবমাননার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।’

লেবাননের খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী আরেক সাংবাদিক গাদাহ উয়াইস এক টুইট বার্তায় বলেছেন যে, ‘আমি মুসলিমদের অনুভূতিতে আঘাতের তীব্র প্রতিবাদ জানাই। ইসলাম ও মুসলিমদের সন্ত্রাসের অপবাদেরও নিন্দা জানাই।’

জর্দানের আয়মান দাবাবনেহ টুইটারে বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি আমার মুসলিম ভাইদের সম্মান না করে অবমাননা করে, সে ব্যক্তি আমাকেও জর্দানের একজন খ্রিস্টান হিসেবে সম্মান করবে না।’

মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর অবমাননার প্রতিবাদে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটার, ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামে হ্যাশটেগ দিয়ে রাসুল অবমাননার প্রতিবাদ শুরু হয়েছে।

মাইকেল আইয়ুব নামে এক খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী টুইটারে লেখেন যে, ‘অন্যের ধর্ম বা নবীকে নিয়ে যারা কটূক্তি করে ও অবজ্ঞা করে আমি তাদের ঘৃণা করি।’

তাছাড়া অনেক খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীকে টুইটারে ‘আমি খ্রিস্টান, ইসলামের নবীর অবমাননার প্রতিবাদ করছি।’ তাঁদের রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম লেখা সংবলিত ছবি পোস্ট করতেও দেখা গেছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...