The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

সিমলার সেই ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ আসছে ভালোবাসা দিবসে [ভিডিও]

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শুটিং এর শুরুতেই যে সিনেমার নাম ব্যাপক সমালোচনার মধ্যে উঠে আসে সেই চলচ্চিত্র ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ শীঘ্রই মুক্তি পেতে চলেছে।

সিমলার সেই ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ আসছে ভালোবাসা দিবসে [ভিডিও] 1

অসম প্রেমের গল্পে চিত্রনায়িকা সিমলা ও ঘেটুপুত্রখ্যাত অভিনেতা মামুনকে নিয়ে এই সিনেমা নির্মাণ করেছেন রুবেল আনুশ। কলেজ পড়ুয়া এক তরুণের সঙ্গে বিদেশ থেকে পড়াশোনা শেষ করে আসা এক তরুণীর প্রেমের গল্পই মূলত তুলে ধরা হয়েছে এই সিনেমাটিতে।

২০১৪ সালের আগষ্ট মাসে শুরু হয় এই সিনেমার চিত্রায়ণ। দুই বছর আগে চিত্রায়ণ শেষ হওয়ার পরেও সিনেমাটি এখনও মুক্তি পায়নি। নির্মাতা জানিয়েছেন, আসছে ভালোবাাসা দিবসে একটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি দেওয়া হবে এই সিনেমাটি। সেই পরিকল্পনা নিয়েই এগিয়ে চলেছে কাজ। পোস্ট প্রডাকশন শেষে বর্তমানে প্রচারে মনোযোগী নির্মাতা রুবেল আনুশ।

এদিকে প্রচারের অংশ হিসেবে গত ৯ নভেম্বর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করা হয় সিনেমাটির প্রথম অফিসিয়াল পোস্টার। পোস্টারে সিমলা এবং মামুনকে অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখা যায়। পোস্টার প্রকাশের পর নতুন করে আবারও আলোচনায় উঠে এসেছে ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প।’

শুরুতেই সিনেমাটির নাম ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ থাকলেও পরে বদল করে রাখা হয়েছিলো ‘প্রেম কাহন’। তবে পোস্টারে আবারও আগের নামই দেখা গেছে। এ সম্পর্কে রুবেল আনুশ বলেছেন, ‘আমার কাছে মনে হয়েছে যে, নতুন নামটি মোটেও গ্রহণযোগ্যতা পায়নি। গল্পের সঙ্গে একেবারেই মিলছিল না। তাই আগের নামেই ফিরে যাচ্ছি।’

‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ সিনেমাটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন কাজী হায়াৎ, শিমুল খান, মুসা, বাপ্পি, টুটুল চৌধুরী, শিশির আহমেদ, পুলক হায়দার, লাবণী, সাদিয়া, আফরিন, বাদলসহ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ সিনেমার শুটিং এর শুরুতেই নানা সমালোচনা সৃষ্টি হয়। একজন কিশোরের সঙ্গে নায়িকা শিমলার এই প্রেম বিশেষ করে কিছু আপত্তিকর দৃশ্যের কারণে চরম সমালোনায় পড়ে সিনেমাটি। যে কারণে এক সময় সিনেমাটির নামও পরিবর্তন করা হয়েছিলো।

এই সিনেমার ‘জোছনারা ঘরে আসে’ শিরোনামে একটি গান ইউটিউবে প্রকাশিত হয়।

দেখুন ভিডিও গানটি

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...