The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

শুরু হয়েছে ‘ভালোবাসা প্রীতিলতা’ সিনেমার শুটিং

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পুরানা ঢাকাস্থ পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে চলছে ‘ভালোবাসা প্রীতিলতা’ সিনেমাটির চিত্রায়ণ। ১৩ নভেম্বর থেকে কারাগারে শুরু হয়েছে সিনেমাটির দ্বিতীয় লটের শুটিং।

শুরু হয়েছে ‘ভালোবাসা প্রীতিলতা’ সিনেমার শুটিং 1

ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের প্রথম নারী বিপ্লবী প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের জীবন নিয়ে কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেনের উপন্যাস ‘ভালোবাসা প্রীতিলতা’ অবলম্বনে এই সিনেমাটি নির্মাণ করছেন নির্মাতা প্রদীপ ঘোষ।

কারাগারে চিত্রায়ণে অংশ নিয়েছেন সিনেমাটির অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা, মনোজ প্রামাণিকসহ অনেকেই। সিনেমায় ‘প্রীতিলতা’ চরিত্রে অভিনয় করছেন তিশা। অপরদিকে এই সিনেমায় বিপ্লবী রামকৃষ্ণের চরিত্রে অভিনয় করছেন মনোজ প্রামাণিক।

কারাগারে চিত্রায়ণ সম্পর্কে তিশা বলেন, ‘সেলিনা হোসেনের উপন্যাস অবলম্বনে সিনেমাটি নির্মাণ করা হচ্ছে। উপন্যাসকে সিনেমার আকারে ধারণ করতে গল্পের প্রয়োজনে যতোটুকু প্রয়োজন আমরা ঠিক ততোটুকুই করছি। রামকৃষ্ণের সঙ্গে প্রীতিলতার সংগ্রামী হয়ে ওঠার যে গল্প রয়েছে, তার যে বিদ্রোহের জায়গা সেটিও তুলে ধরা হয়েছে। এই আমি জীবনে প্রথম জেলখানায় এসেছি। এই জেলখানার কথা অনেক শুনেছিও। আসলে ভেতরে কখনও আসা হয়নি। এসে সবকিছু মিলিয়ে আরও ভালো লাগছে।’

সিনেমাটি সম্পর্কে নির্মাতা প্রদীপ ঘোষ সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, ‘আদর্শিক জায়গা হতে সিনেমাটি বানাচ্ছি। ঐতিহাসিক বিষয় নিয়ে সিনেমা করা আমাদের দেশে খুবই কষ্টকর একটি কাজ। প্রীতিলতাকে নিয়ে আজ পর্যন্ত কোনও সিনেমা হয়নি। বলা যায় প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার আমাদের নারী শক্তির আধার। তিনিই প্রথম শিখিয়েছিলেন যে, নারীরা পারে জীবন দিয়ে হলেও দেশের স্বাধীনতা আনতে।’

২০১৯-২০ অর্থবছরে সরকারি অনুদান পায় সিনেমাটি। ১৫ দিনের মধ্যে সিনেমার চিত্রায়ণ সম্পন্ন করার পরিকল্পনা রয়েছে এই টিমের। ইতিপূর্বে রাজধানীর বিভিন্ন লোকেশনে শুটিং করা হয় ‘ভালোবাসা প্রীতিলতা’ সিনেমার প্রথম লটের কাজ। দ্বিতীয় লটের কাজ শেষে চট্টগ্রামের বিভিন্ন লোকেশনে তৃতীয় লটের চিত্রায়ণ হওয়ার কথা রয়েছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...