The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

জার্মানিতে প্রথম টিকা নিলেন ১০১ বছর বয়সী নারী!

জার্মানির সাক্সোনি-আনহাল্ট অঙ্গরাজ্যের একটি প্রবীণ নিবাসে বসবাসকারী ওই বৃদ্ধাকে গত শনিবার এই টিকা দেওয়া হয়েছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ জার্মানিতে প্রথম করোনা ভাইরাসের টিকা গ্রহণকারীদের মধ্যে নাম লেখালেন ১০১ বছর বয়সী নারী এদিথ কোইজালা।

জার্মানিতে প্রথম টিকা নিলেন ১০১ বছর বয়সী নারী! 1

জার্মানির সাক্সোনি-আনহাল্ট অঙ্গরাজ্যের একটি প্রবীণ নিবাসে বসবাসকারী ওই বৃদ্ধাকে গত শনিবার এই টিকা দেওয়া হয়েছে।

প্রবীণ নিবাসের ব্যবস্থাপক টোবিয়াস ক্রুয়েজার সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, জার্মানির পূর্বাঞ্চলে সাক্সোনি-আনহাল্ট এলাকার ওই প্রবীণ নিবাসে ৪০ জন বাসিন্দা এবং ১০ জন কর্মী রয়েছেন। তাদের সবাইকে টিকা দেওয়া হয়।

রবিবার জার্মানি এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নে (ইইউ) আনুষ্ঠানিকভাবে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়। এর ঠিক একদিন পূর্বেই তাদের ফাইজার-বায়োএনটেক টিকা দেওয়া হয়।

যুক্তরাজ্য গত ২ ডিসেম্বর ফাইজার-বায়োএনটেক টিকার অনুমোদন দেয়। পশ্চিমা দেশে ব্যবহারের জন্য ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকাই প্রথম অনুমোদন পেয়েছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি আরব, সিঙ্গাপুরে টিকা প্রয়োগ শুরু হয়েছে। তবে ইইউয়ের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইউরোপীয় মেডিসিন এজেন্সি (এমা) আগামী ২৯ ডিসেম্বর টিকা প্রয়োগের অনুমতি দিয়েছে।

গত ২১ ডিসেম্বর ইউরোপীয় কমিশন ২৭ ডিসেম্বর থেকে টিকাদান কর্মসূচি শুরুর ঘোষণা দিয়েছিলো। টিকাদান কেন্দ্রের কর্মকর্তা ইমো ক্রেমার একটি চ্যানেলকে বলেন, ‘আমাদের জন্য এক একটি দিনও মহা মূল্যবান।’

ইতিমধ্যেই কয়েক হাজার টিকা আঞ্চলিক স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়। তারা টিকাগুলো স্থানীয় টিকা কেন্দ্রে বিতরণও করেছে। প্রবীণ নিবাসের ৮০ কিংবা তার চেয়েও বেশি বয়সের বাসিন্দা এবং কর্মীরা প্রথমে টিকা নেবেন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...