The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

স্কুল খোলার পর ভারতের কেরালায় ১৯২ শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ভারতের কেরালায় দশম-দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে স্কুল। তারপরই পাশাপাশি দু’টি স্কুলের দশম শ্রেণীর ১৯২ জন শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। সেইসঙ্গে মারণ ভাইরাসের কবলে পড়েছেন ৭২ জন স্কুলকর্মীও।

স্কুল খোলার পর ভারতের কেরালায় ১৯২ শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত 1

করোনায় আক্রান্তের খবরের পরপরই স্কুল দুটি আবারও বন্ধ ঘোষণা করা হয়। মালাপ্পুরামের এক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানিয়েছেন, জেলার মারানচেরিতে একটি সরকারি স্কুলের একজন শিক্ষার্থীর করোনা ধরা পড়ার পর সবার টেস্ট করানো হলে তাতে আরও ১৫০ শিক্ষার্থী এবং ৩৪ জন শিক্ষকের শরীরে ভাইরাসটি শনাক্ত করা হয়। পার্শ্ববর্তী পুন্নানি এলাকার ভ্যান্নেরি উচ্চবিদ্যালয়ের ৩৯ শিক্ষার্থী ও ৩৬ জন শিক্ষকও কোভিড-১৯ সংক্রমণের শিকার হয়েছেন।

রাজ্যের স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন যে, এতোজন কীভাবে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হলেন সেটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে ভারতের মধ্যে সর্বপ্রথম কেরালাতেই কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়। তারপর তা ধীরে ধীরে অন্যান্য রাজ্যেও ছড়িয়ে পড়ে। তবে করোনা মোকাবেলায় অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে দক্ষিণ ভারতের এই রাজ্যটি।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...