The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

আফসানা মিমির পরিচালনা ও অভিনয়ে বিটিভিতে নতুন ধারাবাহিক

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বাংলাদেশ টেলিভিশনে ১৪ ফেব্রুয়ারি হতে শুরু হয়েছে আফসানা মিমির পরিচালনা ও অভিনয়ে নতুন ধারাবাহিক নাটক। এই নাটকের নাম ‘সায়ংকাল’।

আফসানা মিমির পরিচালনা ও অভিনয়ে বিটিভিতে নতুন ধারাবাহিক 1

এক নামেই যাকে সবাই চেনেন তিনি হলেন আফসানা মিমি। দূর্দান্ত এক অভিনয় শিল্পী, দক্ষ নির্মাতা এবং সংগঠকও। বর্তমানে অভিনয়ে নিয়মিত না থাকলেও নাটক নির্দেশনা দিতে দেখা যায় প্রায়ই। নতুন একটি ধারাবাহিক দিয়ে আবার পরিচালনায় ফিরলেন তিনি। কথাশিল্পী শওকত আলীর ত্রয়ী উপন্যাস ‘দক্ষিণায়নের দিন’ অবলম্বনে এই নাটকের নাম দেওয়া হয়েছে ‘সায়ংকাল’।

এই ধারাবাহিকটির নাট্যরূপ দিয়েছেন মনসুর রহমান চঞ্চল এবং আফসানা মিমি। সেইসঙ্গে এখানে অভিনয়ও করেছেন আফসানা মিমি। ১৪ ফেব্রুয়ারি হতে বাংলাদেশ টেলিভিশনে ধারাবাহিকটির সম্প্রচার শুরু হয়েছে। সপ্তাহে তিনদিন প্রতি রবিবার, সোমবার এবং মঙ্গলবার রাত ৯টায় এই নাটকটি প্রচারিত হবে।

‘সায়ংকাল’ নাটকটি প্রযোজনা করেছেন এল রুমা আকতার। দীর্ঘ এই ধারাবাহিকটিতে মিমি ছাড়াও আরও অভিনয় করেছেন খায়রুল আলম সবুজ, শহীদুজ্জামান সেলিম, সানজীদা প্রীতি, শাহাদাৎ হোসেন, নাঈম, শামস সুমন, সুষমা সরকার, শর্মীমালা, স্বাগতা, মুবিদুর সুজাত, রাজীব সালেহীন, জয়িতা মহলানবীশসহ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, নব্বইয়ের দশকের এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী আফসানা মিমি ২০০০ সালে ধারাবাহিক নাটক ‘বন্ধন’ দিয়ে পরিচালনায় নাম লেখান। একুশে টিভিতে প্রচারিত ‘বন্ধন’ ধারাবাহিকটি বেশ জনপ্রিয় ছিলো। আফসানা মিমি তারপর একে একে নির্মাণ করেন দীর্ঘ ধারাবাহিক ‘গৃহগল্প’, ‘সাড়ে তিনতলা’, ‘কাছের মানুষ’, ‘ডলস হাউস’, ‘পৌষ ফাগুনের পালা’ এবং ‘সাতটি তারার মিমির’।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...