The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বিয়ের কনে খুঁজতে শেষ পর্যন্ত পুলিশ-মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ধরনা!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমরা আগে মনে হয় এমন খবর শুনিনি। বিয়ের কনে খুঁজতে গিয়ে কাওকে এমনিভাবে পুলিশ-মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ধরনা দিতে হয়! এবার ঠিক তাই ঘটেছে। রীতিমতো পুলিশ-মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ধরনা দিতে হয়েছে এক ব্যক্তিকে!

বিয়ের কনে খুঁজতে শেষ পর্যন্ত পুলিশ-মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ধরনা! 1

ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের যুবক ২৬ বছর বয়সী আজিম মনসুরী। তিনি দীর্ঘদিন যাবত বেশ ‘বড়সড় সমস্যায়’ ভুগছেন। সমাধান না পেয়ে শেষ পর্যন্ত ছুটে গেছেন পুলিশের কাছে। এমনকি কনের জন্য যোগাযোগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সঙ্গে। তবে তারপরও কিছুতেই কিছু হয়নি। আজিম মনসুরীর সমস্যা হলো– তিনি বিয়ের জন্য পাত্রী পাচ্ছেন না!

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জিনিউজ তাদের এক খবরে জানিয়েছে, উত্তরপ্রদেশ পুলিশের কাছে পাত্রী খুঁজে দেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন আজিম নামে ২৬ বছর বয়সী ওই যুবক।

গত ৫ বছর ধরেই পরিবারের লোকজন আজিমের বিয়ের জন্য পাত্রী খুঁজতে গিয়ে হয়রান হয়ে গেছেন, তবে তাতে কোনো সাফল্য মেলেনি। তাই এবার নিজেই স্বশরীরে থানায় হাজির হয়েছেন আজিম। তার দাবি, তার জন্য উপযুক্ত পাত্রী খোঁজার দায়িত্ব নিতে হবে পুলিশকে!

আজিম মনসুরী মোটেও বেকার পাত্র নন। তিনি রাজ্যের শামলি জেলার কাইরানা শহরে প্রসাধনীর দোকান চালান। তবে তারপরও পাত্রী মিলছে না আজিমের জন্য।

দৈহিক উচ্চতা আজিমের বিয়ের পথে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। মাত্র ২ ফুট উচ্চতার আজিম কম উচ্চতার কারণেই বিয়ের পাত্রী পাচ্ছেন না বলে দাবি করেছেন তার পরিবার। জানা যায়, ৬ ভাইবোনের মধ্যে সবচেয়ে ছোট আজিম। বহুদিন ধরেই পরিবার তার বিয়ের জন্য পাত্রী খুঁজে যাচ্ছে। তবে ক্রমেই দীর্ঘ হয়েছে তাদের অপেক্ষা, সেই সঙ্গে দিনে দিনে বাড়ছে হতাশাও।

আজিমের ভাষায়, ‘আমি রাতে ঘুমাতে পারি না। এতোদিন ধরে চেষ্টা করে যাচ্ছি, তবুও পাত্রী পাচ্ছি না। আমি কী আমার জীবনটা কারও সঙ্গে ভাগ করে নিতে পারবো না কখনও?’

এই বিষয়ে সংবাদ মাধ্যমকে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের কর্মকর্তা সৎপাল সিং বলেছেন, ওই যুবক আমাদের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন পাত্রী খুঁজে দেওয়ার জন্য। আমরা জানি না এক্ষেত্রে কী করতে পারি? কোনও যুগলের মধ্যে সমস্যা হলে সেটি মেটাতে সাহায্য করতে পারি আমরা। কাওকে পাত্রী খুঁজে দেওয়া কিন্তু আমাদের কাজ নয়।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...