The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

কিছুতেই দমছে না মিয়ানমারের সামরিক জান্তা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মিয়ানমারের পরিস্থিতি দিনকে দিন যেনো আরও শোচনীয় হচ্ছে। ইতিমধ্যেই দেশটিতে প্রায় ২ শত মানুষের মৃত্যু ঘটেছে। কিছুতেই যেনো দমছে না মিয়ানমারের সামরিক জান্তা।

কিছুতেই দমছে না মিয়ানমারের সামরিক জান্তা 1

সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা গ্রহণের পর হতে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর দমন পীড়ন ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। দেশটিতে চলমান এই ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ২শ জনে।

দেশটির বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সংঘর্ষ এখনও অব্যাহত রয়েছে। একের পর এক মানুষের মৃত্যু ঘটলেও যেনো দেশটির সামরিক জান্তা নীরবভাবে হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে যাচ্ছে। মানবিকতা যেনো ভুলুণ্ঠিত হচ্ছে বার বার।

ইতিমধ্যে মিয়ানমারের বৃহত্তম শহর এবং বাণিজ্যিক রাজধানী ইয়াঙ্গনের হ্লাইংথায়া শিল্পাঞ্চলে নিহতের সংখ্যা আরও অনেক বেশি হতে পারে বলে আভাস পাওয়া গেছে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম হতে।

ইতিপূর্বে হ্লাইংথায়া এলাকার একটি হাসপাতাল ৩৪টি মৃতদেহ গ্রহণ করে এবং ৪০ জন আহতকে ভর্তি করে। এছাড়াও ওই এলাকায় আরও ৫টি মৃতদেহ পাওয়া গেছে। এসব ঘটনার পর ইয়াঙ্গনের হ্লাইংথায়া এবং শোয়েপিথা শিল্পাঞ্চলে সামরিক আইন জারি করা হয়।

এদিকে মিয়ানমারের চীনা দূতাবাস বলেছে যে, হ্লাইংথায়ায় অজ্ঞাত হামলাকারীরা চীনা গার্মেন্টস কারখানায় হামলা চালিয়ে অগ্নিসংযোগও করেছে, এতে করে অনেক চীনা কর্মী আহত এবং অনেকেই ভিতরে আটকা পড়েছেন; তারা চীনা সম্পত্তি ও নাগরিকদের সুরক্ষা দেওয়ার জন্য মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

এদিকে সারাবিশ্ব মিয়ানমার সামরিক জান্তার বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারী দিলেও তারা যেনো কোনো রকম কর্ণপাত করছেন না। তারা নিরীহ জনগণের উপর নির্মমতা অব্যাহত রেখেছে। এমন অবস্থা বিশ্বের বিবেকবান মানুষ মিয়ানমারের সামরিক জান্তাকে এই সব দমন পীড়ন বন্ধের জন্য আহ্বান জানিয়েছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...