The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

তুরস্কের অ্যাটাক হেলিকপ্টারের প্রথম নারী পাইলট কারাবুলুত!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ স্বমহিমায় রণমূর্তি হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছেন আক্রমণকারী হেলিকপ্টারের সামনে। দেখে মনে হবে কোনো সিনেমার নায়িকা। কিন্তু আসলে তা নয়, তিনি তুরস্কের অ্যাটাক হেলিকপ্টারের প্রথম নারী পাইলট কারাবুলুত।

তুরস্কের অ্যাটাক হেলিকপ্টারের প্রথম নারী পাইলট কারাবুলুত! 1

ঠিক এমনিভাবেই পোজ দিয়েছেন তিনি। চোখে কালো সানগ্লাস, ঠোঁটে লিপস্টিক, গলায় রুচিশীল নীল মাফলার এবং মাস্ক। গায়ে মোড়ানো রয়েছে কালো জ্যাকেট, সুন্দর এক মুখশ্রী। ঠিক যেনো হলিউডের কোনো মুভির মুখ্য চরিত্রে অভিনয়কারী নায়িকা মনে হচ্ছে!

তিনি অবশ্য কোনো সিনেমার নায়িকা নন। তবে নায়িকার চেয়ে কোনো অংশে কমও নন। জাতীয়, আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সব জায়গায় এখন তাকে নিয়ে লিখালেখি। নাম ওজগি কারাবুলুত।

তুরস্কের অ্যাটাক হেলিকপ্টারের প্রথম নারী পাইলট হওয়ার রেকর্ড গড়েছেন এই নারী ওজগি কারাবুলুত। বয়স মাত্র ২৮ বছর। তুরস্কের রাজধানী আংকারায় প্রশিক্ষণ নেওয়া শেষে তিনি এই রেকর্ড গড়েছেন।

তুরস্কভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম ইয়েনি শাফাক তার বিষয়ে জানিয়েছে যে, পুলিশ এভিয়েশন বিভাগের অধীনে কর্মরত কারাবুলুত ডেপুটি পাইলট কমিশনার পদে আসীন রয়েছেন। বলা হচ্ছে যে, হেলিকপ্টার চালনার পরীক্ষায় পাশ করার সাফল্যের সঙ্গে কারাবুলুত নতুন ইতিহাসও সৃষ্টি করলেন। পুলিশ বিভাগ তাদের বহরে অ্যাটাক হেলিকপ্টার অন্তর্ভুক্ত করার পর কারাবুলুত তার দায়িত্ব পালন শুরু করেন।

অপর একটি পত্রিকা ডেইলি সাবাহ জানিয়েছে যে, কারাবুলুত ওই হেলিকপ্টারের ককপিটে বসে সাফল্যের সঙ্গে ৯ সপ্তাহের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করেছেন। এই বিষয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় কারাবুলুত বলেছেন, আমি এর পাইলট হতে পেরে সত্যিই গর্ববোধ করছি, আমি সত্যিই সার্থক, আমার পরিশ্রম বৃথা যায়নি।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...