The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

উইঘুর মুসলমানদের নিয়ে জাতিসংঘের আয়োজন ভন্ডুলের চেষ্টা চালালো চীন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ উইঘুর মুসলমানদের নিয়ে জাতিসংঘ যখন তৎপর ঠিক তখন চীন নানাভাবে জাতিসংঘের প্রচেষ্টাকে ভন্ডুলের পাঁয়তারা চালাচ্ছে।

উইঘুর মুসলমানদের নিয়ে জাতিসংঘের আয়োজন ভন্ডুলের চেষ্টা চালালো চীন 1

শিনজিয়াংয়ের উইঘুর মুসলিম এবং অন্যান্য সংখ্যালঘুদের দমন-পীড়নের বিষয়ে জার্মানি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ব্রিটেন আয়োজিত আগামী সপ্তাহের একটি অনুষ্ঠানে অংশ না নেওয়ার জন্য জাতিসংঘের সদস্য দেশগুলিকে অনুরোধ করলো চীন। এই বিষয়ে পাওয়া একটি নোটের বরাত দিয়ে রয়টার্স এই তথ্য দিয়েছে।

ওই নোটে চীনের জাতিসংঘ মিশন বলেছে যে, ‘এটি মূলত একটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত অনুষ্ঠান। আমরা আপনার মিশনকে চীনবিরোধী এই আয়োজনে অংশ না নেওয়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।’

আগামী ১২ মে জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য এবং ব্রিটেনের প্রতিনিধিরা একটি ভার্চুয়াল সম্মেলনে বসবেন। এই বৈঠকের উদ্দেশ্যই হলো, জিনজিয়াংয়ের সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিমদের ওপর মানবাধিকার লঙ্ঘনের ব্যাপারে জাতিসংঘ, এর সদস্য দেশগুলো ও সুশীল সমাজ কীভাবে তাদের সহায়তা করতে পারে তার উপায় খুঁজে বের করা।

ইতিপূর্বে চীনের সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিমদের ওপর ‘গণহত্যা এবং মানবতাবিরোধী’ অপরাধ চালাচ্ছে বলে জানায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। গত ৩০ মার্চ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বৈশ্বিক মানবাধিকার পরিস্থিতিবিষয়ক বার্ষিক প্রতিবেদনে এই তথ্য তুলে ধরে।

উল্লেখ্য, উইঘুর সম্প্রদায় মূলত তুর্কি বংশোদ্ভূত এক জাতিগোষ্ঠী। চীনের বৃহত্তম প্রদেশ জিনজিয়াংয়ের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে তারিম উপত্যকা এলাকায় বসবাসকারী উইঘুররা দেশটির সরকারিভাবে স্বীকৃত ৫৬টি নৃতাত্ত্বিক সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর মধ্যে অন্যতম।

সম্প্রতি ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির জানিয়েছে যে, উইঘুর সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে চীন সরকারের গণহত্যার অপরাধ সংঘটনের খুবই বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণও তারা পেয়েছেন। উইঘুরদের কাজ করতে বাধ্য করা ছাড়াও বন্দিশিবিরে উইঘুর নারীদের পরিকল্পিতভাবে ধর্ষণ এবং নির্যাতনের প্রমাণও তারা পেয়েছেন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...