The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ন্যান্সির মেয়ে রোদেলা গাইলেন হাবিবের সুরে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নাজমুস মুনীরা ন্যান্সির মেয়ে রোদেলা গাইলেন হাবিবের সুরে। ছোটবেলা থেকেই গানের সঙ্গে সখ্যতা রয়েছে রোদেলার। মায়ের পথ ধরেই সেও গায়িকা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার স্বপ্নে বিভোর।

ন্যান্সির মেয়ে রোদেলা গাইলেন হাবিবের সুরে 1

গানের ভুবনে ন্যান্সির রাজকীয় যাত্রাটা হয়েছিলো তুমুল জনপ্রিয় সংগীত পরিচালক এবং গায়ক হাবিব ওয়াহিদের সঙ্গেই। মজার বিষয় হলো এবার তার মেয়ে রোদেলাও গান করলেন হাবিবের সঙ্গে জুটি হয়ে।

ছোটবেলা থেকেই গানের সঙ্গে সখ্যতা রয়েছে রোদেলার। মায়ের পথ ধরেই সেও গায়িকা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার স্বপ্নে বিভোর। ইতিমধ্যে বেশ কিছু গান প্রকাশ করে প্রতিভার জানান দিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি প্রকাশিত হয় রোদেলার নিজের প্রথম মৌলিক গান ‘আমি উড়ে যেতে চাই’। এবার গাইলেন হাবিবের সুর-সংগীতে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই খবরটি জানিয়েছেন রোদেলা এবং তার মা কণ্ঠশিল্পী ন্যান্সি।

হাবিবের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করে রোদেলা গানটি সম্পর্কে জানিয়েছে, এই গানের শিরোনাম ‘বাধাহীন আমার মনের এই গল্প’। এই গানের কথা লিখেছেন মারুশা। সুর ও সংগীত করেছেন হাবিব ওয়াহিদ। গত ৪ জুন হাবিবের স্টুডিওতে গানটির রেকর্ডিং করা হয়েছে। খুব শীঘ্রই গানটি শুনতে পাওয়া যাবে HW Production –এর অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে।

সংবাদ মাধ্যেমে নতুন এই গানটি সম্পর্কে রোদেলা বলেছেন, ‘গানটি আমার জন্য চ্যালেঞ্জিং ছিল। কারণ হলো আমি এর আগে যে ধরনের গান করেছি, এটা একেবারের ভিন্ন ধরনের। নতুন এই গানটি মেলো-রক ঘরানার গান।’

উল্লেখ্য, জনপ্রিয় শিল্পী ন্যান্সির দুই মেয়ে রোদেলা এবং নায়লার মধ্যে বড় মেয়ে রোদেলা। ছোটবেলা থেকেই গানের সঙ্গে রোদেলার সখ্যতা। মায়ের পথ ধরেই সেও গায়িকা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার স্বপ্নে বিভোর। ইতিমধ্যে বেশ কিছু গান গেয়ে প্রতিভার জানান দিয়েছেন রোদেলা।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...