The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ইসরায়েলি অপরাধযজ্ঞের কথা বিশ্ব ভুলবে না: ইরান

A Palestinian man inspects the damage of a six-story building which was destroyed by an early morning Israeli airstrike, in Gaza City, Tuesday, May 18, 2021. Israel carried out a wave of airstrikes on what it said were militant targets in Gaza, leveling a six-story building in downtown Gaza City, and Palestinian militants fired dozens of rockets into Israel early Tuesday, the latest in the fourth war between the two sides, now in its second week. (AP Photo/Khalil Hamra)

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ফিলিস্তিনি নিরস্ত্র অসহায় জনগণের বিরুদ্ধে দখলদার ইসরায়েল কয়েক দশক ধরে অপরাধযজ্ঞ চালিয়ে আসছে। তবে বিশ্ববাসী কখনও তাদের সেইসব অপরাধযজ্ঞের কথা ভুলে যাবে না বলে মন্তব্য করেছে ইরান।

ইসরায়েলি অপরাধযজ্ঞের কথা বিশ্ব ভুলবে না: ইরান 1

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদে এক টুইটার পোস্টে রবিবার বলেছেন, ইসরায়েলের দখলদারিত্ব, বর্বরতা এবং অপরাধযজ্ঞের সর্বশেষ উদাহরণ হলো- সম্প্রতি অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার ওপর চালানো ভয়াবহ আগ্রাসন। যে আগ্রাসনে ৬০টি শিশুসহ কমপক্ষে ২৬০ জন ফিলিস্তিনি নিহত হন।

সাঈদ খাতিবজাদে বলেন, ইসরায়েলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু তার বিদায়কালেও নিরাপরাধ ফিলিস্তিনিদের রক্ত গ্রহণের কোটা পূরণ করতে চাইছেন বলেই মনে হচ্ছে। তবে সময় একদিন আসবেই, সেদিন এই অপরাধীদের জবাবদিহি করতে হবে। কারণ হলো ইহুদিবাদী অপরাধীদের এই বর্বরতা এবং অপরাধযজ্ঞের কথা বিশ্ববাসী কখনই ভুলে যাবে না।

এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যেসব দেশ দখলদার ইসরায়েলের অপরাধযজ্ঞে সহযোগিতা করেছে, টুইট পোস্টে তাদের ব্যাপারেও সতর্কতা উচ্চারণ করেন খাতিবজাদে। ইসরায়েলের দখলদারিত্বের প্রতি সমর্থন দেওয়ার জন্য এসব দেশের তীব্র নিন্দা এবং সমালোচনাও করেন তিনি।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আরও বলেন, সেইসব দেশের প্রতি তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি, যারা ইসরায়েলি অপরাধযজ্ঞে সমর্থন দিয়েছে এবং দিচ্ছে।

উল্লেখ্য যে, ইরানের এই কূটনীতিক এমন সময় এসব কথা বললেন যখন সাম্প্রতিক যুদ্ধবিরতির পরও দখলদার ইসরায়েল পূর্ব জেরুজালেমে নিরীহ ফিলিস্তিনিদের উচ্ছেদের পাঁয়তারা করে আসছে। দেদারসে গ্রেফতার করছে। যে কারণে আবারও যুদ্ধের হুমকি দিয়েছে হামাস।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...