The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

অন্যকে কষ্ট দিয়ে মানুষ কি মজা পায় তা জানিনা: দীঘি

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ফেসবুকে নিয়মিত নিজের ছবি পোস্ট করেন প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। ছবিগুলো অশালীনও নয়। তারপরও তাঁকে অনেক খারাপ মন্তব্য দেখতে হয়। অন্যকে কষ্ট দিয়ে মানুষ কি মজা পায় তা জানিনা।

অন্যকে কষ্ট দিয়ে মানুষ কি মজা পায় তা জানিনা: দীঘি 1

এই অভিনেত্রী বলেছেন, ‘আমি শালীন পোশাক পরেই ছবি পোস্ট করতাম। ফেসবুকে নতুন নতুন ছবি দেখতে চান অনেক ভক্ত। তাদের জন্যই ছবি পোস্ট করতাম আমি। আবার তারাই আঘাত করতেন। আসলে একশ্রেণীর মানুষ অন্যকে কষ্ট দিয়েই যেনো মজা পান। সেগুলোর মন্তব্য দেখে মাঝে মাঝে মানসিকভাবে ভেঙেও পড়ি।’

দীঘি বলেন, ‘আসলে কিছু মানুষ মজা করার জন্য বুলিং করে। এগুলো আমাদের কনফিডেন্স আরও কমিয়ে দেয়। এখন এসব আমি না দেখে থাকার চেষ্টা করি। ভালোকেই গ্রহণ করি। খারাপকে সব সময় বর্জন করি।’ এই মনমানসিকতা নিয়েই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করেন দীঘি।

এক সময়ের ছোট্ট দীঘি সম্প্রতি নায়িকা হিসেবে পর্দায় নামও লিখিয়েছেন। তার অভিনীত ‘তুমি আছ তুমি নেই’ সিনেমা হলে মুক্তির সময় গালাগালি এবং অশ্লীল শব্দ তার জীবনকে কিছুদিনের জন্য একঘরে করে রেখেছিলো। দীঘি বলেছেন, ‘সিনেমা মুক্তির সেই দিনগুলো আমার জীবনের সবচেয়ে বাজে ও কষ্টকর সময়। বুলিংয়ের কারণে তখন আমি একধরনের ট্রমার ভেতরেও ছিলোম। প্রথম সিনেমা হিসেবে আমার ভুলভ্রান্তিগুলো ক্ষমা করে সাপোর্ট করা উচিত ছিল। তা না করে ফেসবুকে মারাত্মক আক্রমণের শিকার হয়েছি আমি। তারাই এখন আবার ইউটিউবে ছবিটি দেখে ভালো বলছেন!’

উল্লেখ্য, ২০০৬ হতে ২০১২ সাল পর্যন্ত ৬ বছরে ৩৬টি চলচ্চিত্রে শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় করেন দীঘি। ‘কাবুলিওয়ালা’, ‘এক টাকার বউ’, ‘চাচ্চু আমার চাচ্চু’ প্রভৃতি ছবিতে তার অভিনয় প্রশংসিত এবং পুরস্কৃতও হয়। দীঘি এইসব ছবির জন্য ৩ বার পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...