The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

কোটি টাকা মূল্যের বিরল হলুদ কচ্ছপের সন্ধান পাওয়া গেছে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ভারতের পশ্চিমবঙ্গের একটি পুকুরে পাওয়া গেলো বিরল হলুদ রঙের কচ্ছপ। সেখানকার বন বিভাগের কর্মকর্তারা সম্প্রতি কচ্ছপটিকে উদ্ধার করেন।

কোটি টাকা মূল্যের বিরল হলুদ কচ্ছপের সন্ধান পাওয়া গেছে! 1

জানা গেছে, এই প্রথম নয়, এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ভারতে পাওয়া গেলো এই রঙের বিরল কচ্ছপটি।এনডিটিভির এক খবরে বলা হয়, ইতিপূর্বে গত জুলাই মাসেও উড়িশ্যায় একই রঙের একটি কচ্ছপ পাওয়া যায়। ভারতীয় বন বিভাগের কর্মকর্তা দেবাশীষ শর্মা টুইটারে সদ্য উদ্ধার করা কচ্ছপটির একটি ছবি প্রকাশ করেছেন।

দেবাশীষ লিখেছেন, পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমানের একটি পুকুরে কচ্ছপটির খোঁজ পাওয়া গেলে পরে সেটিকে উদ্ধার করা হয়। বিশেষজ্ঞরা ধারণা করছেন যে, জিনগত পরিবর্তনের কারণে কচ্ছপটির গায়ের রং হলুদ হয়ে থাকতে পারে।

টুইটারে দেবাশীষ শর্মা আরও লিখেছেন, ‘আজ (মঙ্গলবার) পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমানের একটি পুকুর হতে একটি হলুদ কচ্ছপ উদ্ধার করা হয়। এটিকে বলা যায় বেশ বিরল কচ্ছপ।’

এদিকে এই হলুদ রঙের কচ্ছপটির ছবি টুইটারে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। কচ্ছপটির প্রতি অনেকেরই আগ্রহ দেখা দিয়েছে। ভারতের বন বিভাগের অনেক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা কচ্ছপের এই ছবি রিটুইটও করেছেন। দেবাশীষ শর্মা আরও লিখেছেন যে, ‘এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো এই ধরনের কচ্ছপ পাওয়া গেলো ভারতে।

ইতিপূর্বে উড়িশ্যার বালাসোরে এমন কচ্ছপ পাওয়া গিয়েছিল। অবশ্য এটি এখনও স্পষ্ট নয় যে, এটি আদতেও নতুন জাতের কচ্ছপ নাকি জিনগত পরিবর্তন থেকে এমনটি হয়েছে।’

দেশটির বন্য প্রাণিবিষয়ক তত্ত্বাবধায়ক ভানুমিত্র আচার্য বলেছেন, ‘এটি একটি বিরল প্রজাতির কচ্ছপ। খোলসসহ কচ্ছপটির পুরো দেহই একেবারে হলুদ রঙের। আমি আগে কখনওএমন কচ্ছপ দেখিনি।’

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...