The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

১০০ কেজি ওজনের লেহেঙ্গা কী আগে কখনও দেখেছেন? [ভিডিও]

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ হয়তো এতো ভারি এবং এতো বড় লেহেঙ্গা আপনি আগে কখনও দেখেননি বা শোনেন নি। আজ রয়েছে এমন ১০০ কেজি ওজনের একটি লেহেঙ্গার খবর।

১০০ কেজি ওজনের লেহেঙ্গা কী আগে কখনও দেখেছেন? [ভিডিও] 1

আমরা সবাই বিয়ের দিনটিকে স্মরনীয় করে রাখতে চেষ্টার ক্রটি করি না। বিশেষ করে বিয়ের দিনে নিজেকে সর্বোচ্চ সুন্দর দেখানোর চেষ্টা থাকে প্রত্যেকের।

সবার চেষ্টাও থাকে বিয়ের পোশাক যেনো অভিজাত আর মনোমুগ্ধকর হয়। তবে এক কনে বিয়েতে ১০০ কেজি ওজনের বিশাল লেহেঙ্গা পরে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন!

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের যুগে বিয়ের মৌসুম আসলে প্রতিদিনই বর-কনের উদ্ভট নানা ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায়। তারই ধারবাহিকতায় পাকিস্তানী এক কনে গত বছরের ভিডিও নতুন করে নেটমাধ্যমে আলোড়ন তুলেছে। যা সম্প্রতি গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে প্রকাশ পেয়েছে।

নিজের দিকে ওই কনে সকলের নজর কাড়ার জন্য বেছে নিয়েছিলেন লাল রঙের এক বিশাল লেহেঙ্গা। প্রশ্ন উঠতে পারে কেনো এতো ওজন হলো এই লেহেঙ্গার? লেহেঙ্গাটি ভারি হাতের কাজের জন্যই তা হয়েছে। এতে বসানো হয়েছে প্রচুর পাথর।

এর ঘের এতোটাই বেশি যে পুরো বিয়ের মঞ্চ ওই লেহেঙ্গা দিয়ে ঢেকে দেওয়া সম্ভব! কনে মঞ্চে বসার পর লেহেঙ্গার শেষ প্রান্ত উঁচু মঞ্চের সিঁড়ি ছাড়িয়ে একেবারে মেঝেতে গিয়ে পৌঁছেছে বলে ভিডিওতে দেখা যায়।

লাল লেহেঙ্গা এবং গহনায় ঝলমলে সাজে কনের পাশে অবশ্য সাদামাঠা সোনালি শেরোয়ানি ও লাল পাগড়িতে কিছুটা নিষ্প্রভ লাগছিল বর মহাশয়কে।

জানা যায়, গত বছরও এই ভিডিওটি নেটমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছিল। কেও কেও ওই কনের সাজের প্রসংশাও করেছেন। তবে নেটমাধ্যমে নিন্দাও করেছেন অনেকেই।

তবে নেটিজেনদের কৌতুহলের বিষয় ছিলো এতো ভারি লেহেঙ্গা পরে কীভাবে নড়াচড়া করেছেন কনে তা নিয়ে। বছর ঘু্রলেও এ নিয়ে চর্চা যেনো থামছেই না। তাই আরও ভিডিও ভাইরাল হলো ওই ভিডিওটি।

দেখুন ভিডিওটি

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...