The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বিখ্যাত গান ‘মানিকে মাগে হিথে’ গেয়ে আবারও সমালোচনায় হিরো আলম! [ভিডিও]

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘মানিকে মাগে হিথে’ শিরোনামে একটি সিংহলী ভাষার গান ভাইরাল হয়। সেই গানটি এবার হিরো আলম গেয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছেন।

বিখ্যাত গান ‘মানিকে মাগে হিথে’ গেয়ে আবারও সমালোচনায় হিরো আলম! [ভিডিও] 1

‘মানিকে মাগে হিথে’ গানটি বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারতেও ভাইরাল হয়। গানটি গেয়েছেন শ্রীংলকার ইয়োহানি ডি সিলভা; তিনি দেশটির তরুণ একজন শিল্পী, গীতিকার ও সংগীত প্রযোজক। গানটি ইয়োহানির ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করা হয় গত ২২ মে। তবে রেকর্ড ভিউ হয় গত এক সপ্তাহ।

এই গানটি প্রথমে গেয়েছেন শ্রীলংকার র‌্যাপার সথিশন রথনায়কা; পরে ইয়োহানির সঙ্গে এটি কাভার করেছেন তিনি। গানের শিরোনাম ‘মানিকে মাগে হিথে’র অর্থ হলো ‘তুমি আমার হৃদয়ের মণি’।

নেট দুনিয়ায় চোখ রাখলেই দেখা যাচ্ছে যে, মিষ্টি চেহারার এক তরুণী মাইক্রোফোনের সামনে গানটি গাইছেন। গভীর চাহনি আর প্রাণ উজাড় করা হাসিতে কোটি কোটি মানুষকে মুগ্ধও করেছেন তিনি। ইতিমধ্যে সিংহলী ভাষার এই গানের তামিল, মালয় ও বাংলা সংস্করণও বের হয়েছে।

এবার ভাইরাল হওয়া গানটি গাইলেন হিরো আলম। শনিবার নিজের ইউটিউব চ্যানেলে গানটি প্রকাশ করেন তিনি। ‘মানিকে মাগে হিথে’ হিরো আলম ভার্সন শিরোনামের গানটি ইতিমধ্যেই শুনেছেন ১০ হাজারের বেশি মানুষ। গানটিতে মন্তব্য করেছেন প্রায় ৩ হাজার। অর্থাৎ আবারও চরম সমালোচনায় পড়েছেন হিরো আলম। গানটি তিনি গেয়েছেন ‌‘যা থা’ ভাবে।

উল্লেখ্য, আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম বগুড়ার একজন ক্যাবল ব্যবসায়ী হয়েও নিজের বানানো মিউজিক ভিডিওর মডেল হয়ে আলোচনায় উঠে আসেন হিরো আলম। বিভিন্ন ভাষায় গান গেয়ে হয়েছেন সমালোচিত। তিনি কাজ করেছেন চলচ্চিত্রেও। একাদশ সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-৪ আসন থেকে নির্বাচনেও অংশ নিয়েছিলেন হিরো আলম।

দেখুন গানটি

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের কাপড়ের মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...