প্রতিদিন চার কাপের বেশী কফি পান প্রাপ্ত বয়স্কদের মৃত্যু ঝুঁকি বাড়ায়!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক॥ সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে কফি পান মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো হলেও মাত্রা অতিরিক্ত কফি পান প্রাপ্ত বয়স্কদের মৃত্যু ঝুঁকি বাড়ায়। গবেষকরা জানিয়েছেন প্রাপ্ত বয়স্কদের কফি পানের মাত্রা অবশ্যই চার কাপের বেশী যেন না হয়।


i-LOVE-coffee-coffee-25055460-1280-800

গবেষকরা গবেষণায় পান একজন মানুষ যদি সাপ্তাহে ২৮ কাপের বেশী কফি পান করেন তবে তাঁর মৃত্যু ঝুঁকি বেড়ে যায় ২৮% কিন্তু এ ঝুঁকি আরও বেশী ৫০% হয়ে যেতে পারে যদি ৫৫ বছরের কম বয়সের কেউ এ পরিমাণ কফি পান করে থাকে।

গবেষক দলের সদস্য ডাক্তার কার্ল লাভি বলেন, “ কফি এমন একটি পানীয় যার ভালো দিক এবং খারাপ দিক উভয় রয়েছে। আপনি যখন সহনীয় মাত্রায় কফি পান করবেন সেক্ষেত্রে এটি আপনার শরীরের জন্য ভালো ফল বয়ে আনবে অপরদিকে আপনি যদি পর্যাপ্ত মাত্রার বেশী পরিমাণ কফি পান করেন তবে এটি আপনার মৃত্যু ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়।“

এই গবেষণায় দেখা যায় অ্যামেরিকার প্রাপ্ত বয়স্করা প্রতিদিন অন্তত গড়ে তিন কাপ কফি পান করে।

এদিকে কফি বিষয়ক এ গবেষণা করার ক্ষেত্রে গবেষকরা অ্যামেরিকার ২০ থেকে ৮৭ বছরের ৪৪,০০০ মানুষের উপর জরিপ চালান, এখাত্রে তারা জরিপে অংশ নেয়া সকলের জীবনে চিকিৎসা সম্বন্ধীয়, শারীরিক সমস্যা এবং জীবনযাপন প্রণালীর খোঁজ খবর নেন এবং সেসব তথ্য লিপিবদ্ধ করেন। বেশীরভাগ জরিপে অংশ নেয়া মানুষ ছিলেন পুরুষ। গবেষকরা জরিপে অংশ নেয়া সবার কফি পানের পরিমাণ ও জেনে নেন।

গবেষকরা টানা ১৭ বছর ঐ সব মানুষের উপর নজর রাখেন এদের অন্তত ২,৫০০ জন মারা গেছেন যাদের বেশীরভাগ হৃদরোগে ভুগে মারা গেছেন। অপরদিকে যুবকদের মাঝে ৫৬ শতাংশ মারাগেছেন যারা সাপ্তাহে ২৮ কাপ কফি পান করতেন।

গবেষকরা বলেন, “ যেসব মানুষ মাত্রা অতিরিক্ত কফি পান করছেন তারা অনেকটা ধূমপানের মতই নিজের শরীরের ক্ষতি করছেন এবং স্বাস্থ্যগত জটিলতায় ভুগছেন।“

গবেষণার তথ্য মতে স্বাভাবিক মৃত্যু হার থেকে কফি পানের ফলে মৃত্যু ঝুঁকি বৃদ্ধি এবং এর ফলে মৃত্যু হার ৫৬ শতাংশের বেশী যার বেশীর ভাগ হৃদরোগে ভুগে মারা গেছেন। কফি পানে মৃত্যু ঝুঁকি নারী পুরুষ উভয়ের ক্ষেত্রে সমান বলেও গবেষকরা জানান।

এদিকে আগের গবেষণায় যেখানে জানা গিয়েছিল কফি পান স্বাস্থ্যের জন্য ভালো কিন্তু সম্প্রতি গবেষণায় দেখা যাচ্ছে মাত্রা অতিরিক্ত কফি পান ক্ষতি সে ক্ষেত্রে মানুষ একে কি ভাবে নিচ্ছে? এবিষয়ে ডাক্তার লেস্লি চোঁ বলেন, “ সব কিছুরই একটি মাত্রা আছে, সাপ্তাহে ২৮ কাপ কফি পান একজন সাধারণ মানুষের জন্য অবশ্যই মাত্রা অতিরিক্ত আমি এক্ষেত্রে অবশ্যই বলব যারা এ পরিমাণ কফি পান করছেন তাদের এখনই সাবধান হওয়া উচিৎ।‘

মাত্রা অতিরিক্ত কফি পান মানুষের জন্য ক্ষতিকর কারণ এতে থাকা ক্যাফেইন মানুষের ব্লাড প্রেসার বাড়িয়ে দেয় এবং হৃদরোগ ঝুঁকি বাড়ায়।

ডাক্তার লেস্লি চোঁ আরও বলেন,” আমাদের মাত্রা অতিরিক্ত কফি পানে সাবধান হতে হবে কারণ এমনিতেই প্রাত্যহিক নানান কাজে আমাদের হার্ট অনেক ঝুঁকিতে থাকে তাঁর উপর মাত্রা অতিরিক্ত ক্যাফেইন শরীরে গ্রহণের ফলে আমাদের হার্ট আরও ঝুঁকিতে পড়ে যায়।“

অতএব আমাদের এখনই মাত্রা অতিরিক্ত কফি পান থেকে বিরত থাকতে হবে। সুস্থ থাকতে নিয়মতান্ত্রিক জীবনযাপন করুন।

কফি বিষয়ক এই গবেষণাটি প্রথম প্রকাশিত হয়ঃ মায়ো ক্লিনিক প্রসিডিং নামে এক স্বাস্থ্য বিষয়ক সাইটে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...