সাজাপ্রাপ্ত মার্কিন সেনা ব্র্যাডলি ম্যানিং নারী হতে চান

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক॥ মার্কিন গোপন নথি উইকিলিকসের কাছে তুলে দেয়ার কারণে ৩৫ বছরের সাজা প্রাপ্ত মার্কিন সেনা ব্র্যাডলি ম্যানিং মিডিয়াকে জানালেন তিনি বাকী জীবন একজন নারী হয়ে কাটাতে চান।


bradley_manning_ft_meade_wikileaks_ap_060413_606

মার্কিন টেলিভিশন এনবিসি নিউজে ব্র্যাডলি ম্যানিং একটি বার্তায় জানান তিনি তাঁর বাকী জীবন একজন নারী হিসেবে কাটাবেন বলে মনস্থির করেছেন, আর একজন নারী হিসেবে নিজের কি নাম হবে তাও তিনি ঠিক করে ফেলেছেন। তিনি তাঁর ভবিষ্যৎ নাম চেলসি ম্যানিং রাখবেন বলে জানান। তিনি সাংবাদিকদের বলেন এখন থেকে তাকে চেলসি ম্যানিং নামে সম্বোধন করতে।

এনবিসি টেলিভিশনে পাঠানো বার্তায় ব্র্যাডলি ম্যানিং জানান, “আমি আমার ছেলেবেলা থেকেই নিজেকে একজন নারী হিসেবে কল্পনা করে এসেছি, এবার আমার কল্পনার আমি বাস্তব রুপ দিবো। খুব জলদি আমি হরমোন থেরাপির মাধ্যমে নিজেকে পূর্ণাঙ্গ নারীতে রুপান্তর করতে চাই। আশা করবো আপনারা সবাই আমাকে সাহায্য করবেন।”

এনবিসি টেলিভিশনে ব্র্যাডলি ম্যানিং যে চিঠি পাঠান তাতে তিনি নিজের নাম লিখেন চেলসি ম্যানিং। এনবিসি টেলিভিশন সেই স্বাক্ষরের ছবি তাদের টুইটার একাউন্টে পোস্ট করে।

Screenshot_18

এদিকে ব্র্যাডলি ম্যানিং এর বিচার চলা কালে তাঁর আইনজীবী আদালতে ২০১০ সালে লেখা তাঁর একটি চিঠি উপস্থাপন করেন যেখানে তিনি সামরিক প্রশাসককে নিজের লিঙ্গ পরিবর্তন করার ইচ্ছের কথা জানান। সেই চিঠিতে তিনি নিজের একটি ছবিও সংযুক্ত করেছিলেন যেখানে তাকে দেখা যায় মুখে নারীদের লিপস্টিক দেয়া এবং নারীদের সাজ পোষাকে সজ্জিত।

সূত্রঃ ম্যাশাবল

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...