‘টানেল অব লাভ’ যেখানে প্রকৃতি ও ভালোবাসা মিশেছে নান্দনিকতায়

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ অনন্য সুন্দর একটি টানেলের নাম টানেল অব লাভ’ না এটি কোন মানুষের তৈরি নয়। প্রকৃতি নিজের হাতে একে তৈরি করেছে। দুই ধারে গাছের সারি উপরে অর্ধবৃত্ত হয়ে মিশে গেছে ভালোবাসার আলিঙ্গনে। দেখে মনে হবে কোন বিখ্যাত স্থাপত্যবিদ বুঝি এটি তৈরি করেছেন আসলে তা নয় এটি প্রকৃতি মায়ের নিজের হাতে তৈরি।


271-1-or-1348648045

ইউরোপের ইউক্রেনের ক্লেভ্যান শহরে এটি অবস্থিত, যদিও এর মাঝে দিয়ে চলে গেছে একটি ভারী শিল্পের মালামাল পরিবহণের মালবাহী ট্রেন রাস্তা তবে প্রথম দর্শনে দেখে বোঝার উপায় নেই এখানে কোন ট্রেন লাইন রয়েছে। ট্রেন লাইনটি দীর্ঘ ১.৮ মাইল লম্বা এবং এটি সম্পূর্ণ সবুজে ঢাকা।

ক্লেভ্যান শহরের অদূরে জংগলের মাঝে অবস্থিত এই প্রাকৃতিক টানেল ইউক্রেন এবং পোল্যান্ড বাসী প্রেমিক প্রেমিকাদের জন্য এক পবিত্র স্থান। কারণ কথিত আছে এখানে প্রিয় মানুষকে নিয়ে হাঁটলে মন বাসনা পূরণ হয়! অনেকেই এখানে এসে ভালোবাসার মানুষকে কথা দেন তারা একে অপরকে আজীবন ভালোবেসে যাবেন।

এ টানেলের সৌন্দর্য তিন ঋতুতে তিন রকম যেমন শীত কালে টানেলের সকল গাছ ঢেকে যায় বরফে ফলে এই সময় বরফে ঢাকা টানেলের সৌন্দর্য বিমোহিত করে সকল দর্শনার্থীদের। আবার বসন্ত কালে একই রূপে দেখা দেয় ভিন্নতা! এসময় সম্পূর্ণ টানেলে দেখা দেয় সবুজের আবহ ফলে টানেলটিকে মনে হয় সবুজ দুর্গ! এসময় টানেলের ভেতর দিয়ে হেঁটে বেড়ানো এক অন্য রকম অভিজ্ঞতা। একই টেনেলের আরেক রূপ দেখা যায় যখন গ্রীষ্ম কাল আসে! এসময় টানেলের আশেপাশে সকল গাছ পালা হয়ে যায় পাতা শূন্য শুষ্ক!
tunnel of love ukraine

‘টানেল অব লাভ’ বিষয়ে নানান কথা প্রচলন আছে ইউক্রেনে, অনেকের ধারণা এখানে ভালোবাসার মানুষটিকে সাথে নিয়ে ভবিষ্যতের যেকোনো ইচ্ছে নিয়ে সৎ মানসিকতায় টানেল পার হলে মনের সেই বাসনা পূর্ণ হয়! ফলে ইউরোপের অনেক দেশ থেকে অনেক প্রেমিক প্রেমিকা যুগল আসেন এই টানেলে ভালোবাসার স্বপন পুরনের ইচ্ছা ব্যাক্ত করতে। অনেকেই হাত ধরে পারি দেন টানেলের দীর্ঘ ১.৮ মাইল রাস্তা।

tunnel of love

caption-320130928145730

caption-520130928145750

tunnel of love

caption-420130928145740

The-Tunnel-of-Love_1

বেশ কিছু বছর আগে এই টানেলের যায়গা দিয়েই তৈরি হয়েছিল একটি ট্রেন রাস্তা সে সময় জঙ্গলে ঘেরা পরিবেশের মাঝে এই টানেল ছিলোনা, ট্রেন রাস্তার দুই ধারে ফ্লোরা ফুলের গাছ লাগানো হয়েছিল বেশ কিছু , সেই গাছ নিজে থেকেই বড় হয়ে উপরে গিয়ে মিশেছে এপারের গাছ ওপারের গাছের সাথে, ফলে তৈরি হয়েছে টানেল আকৃতি! যদিও এই রাস্তা তৈরি হয়েছে ট্রেন চলা চলের জন্য তবে খুব একটা ট্রেন এখন এখানে চলেনা মাঝে মধ্যে ট্রেনের দেখা মিললেও সব সময় এখানে দেখা মিলবে নানান মন বাসনা নিয়ে ঘুরতে আসা প্রেমিক প্রেমিকাদের।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...