The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

redporn sex videos porn movies black cock girl in blue bikini blowjobs in pov and wanks off.

অবশেষে যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের ঘুম ভাঙ্গলো! রাজধানীতে শিগগিরই দুই হাজার ট্যাক্সিক্যাব নামানোর ঘোষণা দিলেন যোগাযোগমন্ত্রী

ঢাকা টাইমস্‌ রিপোর্ট ॥ এতদিন পরে হলেও যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সুমতি হয়েছে। যোগাযোগ ও রেলপথমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, শিগগিরই রাজধানীতে দুই হাজার ট্যাক্সিক্যাব নামানো হবে। রাজধানীবাসী দীর্ঘদিন ধরেই চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। এ খবর শুনে রাজধানীবাসী কিছুটা হলেও স্বস্থির নিঃশ্বাস নিতে পারবেন।
অবশেষে যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের ঘুম ভাঙ্গলো! রাজধানীতে শিগগিরই দুই হাজার ট্যাক্সিক্যাব নামানোর ঘোষণা দিলেন যোগাযোগমন্ত্রী 1
২৭ মে যোগাযোগ মন্ত্রী জানান, এজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বিআরটিএ’কে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তিন মাসের মধ্যে রাজধানীতে চলাচলরত সবধরনের যানবাহনে নতুন করে রঙ করারও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তিন মাস পরে রাজধানীতে আর কোন পুরনো, রঙচটা, জরাজীর্ণ ও ত্রুটিপূর্ণ যানবাহন চলতে দেয়া হবে না। তিনি বলেন, রাজধানীর সড়কে লক্কড়-ঝক্কড় মার্কা যানবাহনের চেহারা দেখলে হতাশ হতে হয়। তাই এসব যানবাহনের চেহারা বদলে দিতে হবে।

যোগাযোগ মন্ত্রী আরও বলেন, আগামী ৯ মাসের মধ্যে পদ্মা সেতু প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। প্রকল্পের জন্য মালয়েশিয়া সরকার প্রস্তাব উত্থাপন করবে বলে জানান যোগাযোগমন্ত্রী।

২৭ মে সকালে রেলভবনে মহানগরীর যানজট নিরসন এবং যাত্রী পরিবহনকারী যানবাহনের সৌন্দর্যবর্ধন বিষয়ক সভা শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে ওবায়দুল কাদের এ সিদ্ধান্তের কথা জানান। এ সময় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সামসুল হক টুকু উপস্থিত ছিলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, একটি শহরে ২০ থেকে ২৫ ভাগ রাস্তা থাকতে হয়। ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের তথ্য অনুযায়ী ঢাকা মহানগরীতে রাস্তা আছে শতকরা ৮ ভাগ। আবার এই ৮ ভাগ রাস্তাও পুরোপুরি ব্যবহার করা যাচ্ছে না।

এর আগে অনুষ্ঠিত সভায় সড়ক বিভাগের সচিব এমএএন সিদ্দিক, বিআরটিএ চেয়ারম্যান আইয়ুবুর রহমান খান, ডিএমপির কমিশনারসহ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড, বাংলাদেশ ব্যংক, পরিবহন মালিক সমিতি, শ্রমিক ফেডারেশন ও অন্য স্টেক হোল্ডারদের প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, সামপ্রতিক সময়ে ট্যাক্সি ক্যাবের সংকটের কারণে রাজধানীবাসী চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। বিগত বিএনপি তথা জোট সরকারের আমলে এই ট্যাক্সি ক্যাব ও সিএনজি চালু করা হয়। সেসময় বলা হয়েছিল, যেহেতু এগুলো মিটার চালিত তাই খালি থাকলেই যে কোন স্থানে যাত্রী পরিবহনে বাধ্য থাকবে। কিন্তু বাস্তবে ঘটে তার উল্টো। ইদানিং আবারও নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে। আর তা হলো, মিটারে কোন সিএনজি ও ট্যাক্সি ক্যাব চলে না। যাত্রীদের কাছ থেকে ইচ্ছা স্বাধীনভাবে ভাড়া হাকে সিএনজি ও ট্যাক্সি ক্যাব চালকরা। তাছাড়া সমপ্রতি রাজধানী থেকে হলুদ ট্যাক্সি ক্যাবগুলোও উধাও হয়েছে। শুধুমাত্র লক্কর-ঝক্কর মার্কা কিছু ব্লু ও কালো কালারের ট্যাক্রি ক্যাব রাজধানীতে চলাচল করছে যা অত্যন্ত সীমিত। যে কারণে যাত্রীদের ভিড় ঠেলে বাসে উঠতে হয়।

এতোসব দুর্ভোগের কারণে যোগাযোগ মন্ত্রীর ট্যাক্সি ক্যাব নামানোর ঘোষণা কিছুটা হলেও যাত্রীদের স্বস্থির সুবাতাস বহন করছে বৈকি!

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...
sex không che
mms desi
wwwxxx