১ অক্টোবর থেকে ভাড়া বৃদ্ধি ॥ রেলের বর্ধিত ভাড়ায় অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ ১ অক্টোবর থেকে রেলের ভাড়া বৃদ্ধি হচ্ছে। এদিকে এ ঘোষণার পর বিভিন্ন রেলস্টেশন থেকেও বর্ধিত ভাড়ায় অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।

জানা যায়, ভাড়া সর্বোচ্চ ৫০ ভাগ বাড়ানোর কথা থাকলেও কোনো কোনো ক্ষেত্রে ৬০-৭০ ভাগ পর্যন্তও বাড়ানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন যাত্রীরা।

উল্লেখ্য, সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১ অক্টোবর থেকে বর্ধিত ভাড়ায় ট্রেন চলবে। এতে গত ২৬ সেপ্টেম্বর থেকেই ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ বেশ কিছু রেলস্টেশনে ১ অক্টোবরের অগ্রিম টিকেট বিক্রি শুরু হয়।

জানা গেছে, ধরন বুঝে টিকেটপ্রতি ভাড়া সর্বোচ্চ ৫০ ভাগ বাড়ানো হয়েছে। তবে কোনো কোনো ক্ষেত্রে টিকেটের মূল্য ৬০ থেকে ৭০ ভাগ পর্যন্তও বাড়ানো হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

ভাড়া বাড়ানোর পাশাপাশি সেবার মানেরও উন্নয়ন করা হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ রেলওয়ের বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা রোকনুজ্জামান। তিনি বলেন, “রেলের লক্ষ্য থাকবে সেবা যাতে আরো বৃদ্ধি পায়। যেহেতু ভাড়া বাড়ছে, যাত্রীদের প্রত্যাশাও বেড়ে যাবে। সেদিকে লক্ষ্য রেখে রেল যেন সময়মতো চলে এবং যাত্রীরা টিকেট যাতে নির্বিঘ্নে পায় এ চেষ্টা থাকবে আমাদের।”

অপর দিকে যাত্রীদের সঙ্গে আলাপ করে পাওয়া গেছে এর উল্টো জবাব। তারা বলেছেন, ভাড়া বেড়েছে তাতে আমাদের ক্ষোভ নাই, কিন্তু সেবার মান বাড়েনি এতটুকুও। এখনও ট্রেন যা ছিল আগে তাই রয়ে গেছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করা লাগছে। তারপর রয়েছে আরও অনেক সমস্যা। বাথরুমগুলো ব্যবহার অনুপযোগী। টিকেট কাউণ্টারে কোন তদারকি নেই। অনেক সময় লাইন ছাড়াই অনেকে টিকেট নিলেও কাউন্টার ম্যান কিছুই বলছে না। এমন হাজারও সমস্যার কথা যাত্রীরা জানিয়েছেন।

তাই অভিজ্ঞ মহলের ধারণা ভাড়া বাড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে সেবার মান না বাড়ালে যাত্রী সংখ্যা কমে যাবে এবং সেক্ষেত্রে সরকারের আয় বাড়বে বলে যে ধারণা পোষণ করা হচ্ছে, তাও ভেস্তে যাবে। এ বিষয়গুলো সংশ্লিষ্ট রেল কর্তৃপক্ষকে ভেবে দেখতে হবে বলে সবাই মত দিয়েছেন।

Advertisements
Loading...